• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ৯ শ্রাবন ১৪২৮ ১৩ জিলহজ ১৪৪২

ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের দ্রুত ফেরত এনে কোয়ারেন্টিনে রাখার ব্যবস্থা করুন

| ঢাকা , বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০

ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে চিকিৎসা করাতে গিয়ে আটকা পড়ে আছেন সহস্রাধিক বাংলাদেশি। চিকিৎসা শেষে কিংবা চলাকালে লকডাউনের কারণে তারা আটকে পড়েছেন। এমতাবস্থায় খাদ্য, পানি, ওষুধ এবং টাকা শেষ হয়ে এলেও তারা নিরুপায় হয়ে পড়েছেন। এ অবস্থায় দিশেহারা হয়ে তারা বাংলাদেশ হাইকমিশনের সঙ্গে যোগাযোগ করে খুব একটা আশান্বিত হতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন। এ নিয়ে গত মঙ্গলবার গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। এ অবস্থায় কতদিন তারা ভারতে থাকবেন বা থাকতে পারবেন তা নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে হবে বাংলাদেশ হাইকমিশনকে। প্রয়োজনে বিশেষ বিমানে তাদের নিয়ে আসতে হবে। তাদের আনার বিষয়টি যেমন জরুরি, তেমনি তাদের আনার পর কোয়ারেন্টিনে রাখার বিষয়টিও নিশ্চিত করতে হবে। এর আগে আমরা দেখেছি, চীন ফেরত বাংলাদেশিদের আশকোনা হজ ক্যাম্পে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছিল। সেটা একটা ভালো উদ্যোগ ছিল।

কিন্তু পরে যারা বিদেশ থেকে এসেছেন তাদের কোয়ারেন্টিনের ব্যাপারে ঢিলেঢালাভাব দেখা গেছে। ফলস্বরূপ অর্ধশতাধিক মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এক্ষেত্রে ঢিলেঢালাভাব কাম্যও নয়, গ্রহণযোগ্যও নয়। গত সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের বিশেষ বিমানে বাংলাদেশ থেকে ফেরত পাঠানো হয়েছে। ভারতে বাংলাদেশের হাইকমিশনকে এ ব্যাপারে দ্রুত উদ্যোগী হয়ে বাংলাদেশিদের ফেরত পাঠাতে হবে বিশেষ বিমানে। এক্ষেত্রে কোন অবহেলা বা গাফিলতি করা যাবে না।

যে যেখান থেকে আসুক কোয়ারেন্টিন কঠোরভাবে মানতে বাধ্য করতে হবে। চিকিৎসার জন্য যেসব বাংলাদেশি ভারতে গিয়েছেন তাদের দ্রুত নিয়ে আসতে না পারলে অবস্থা শোচনীয় হয়ে পড়বে। ভারতে বাংলাদেশের হাইকমিশনকে একটি তথ্য বের করতে হবে যে, কতজন বাংলাদেশি চিকিৎসা করতে গিয়ে আটকা পড়েছেন। তাদের তালিকা প্রস্তুত করে দেশে ফেরত পাঠাতে হবে। দেশে ফেরতদের অবশ্যই কোয়ারেন্টিনে রাখত হবে। সেটা আশকোনা হজ ক্যাম্প হোক বা অন্য কোথাও হোক।