• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮ ২০ জিলহজ ১৪৪২

সঠিক পরিকল্পনায় বাজেট ঘাটতি সমাধান করা হবে পরিকল্পনামন্ত্রী

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , শনিবার, ০৫ জুন ২০২১

বাজেটে ঘাটতির বিষয়টি ভবিষ্যতের ব্যাপার। সঠিক পরিকল্পনায় বাজেট ঘাটতি সমাধান করা হবে বলে মন্তব্য করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটে ২ লাখ ১৪ হাজার কোটি টাকার ঘাটতি পূরণ করা কোন কঠিন কাজ নয়। এই ঘাটতি পূরণে আমরা ধারদেনা করব। আমাদের ধারের বাজার ভালো। ধার পরিশোধের রেকর্ডও ভালো। গতকাল ভার্চুয়াল মাধ্যমে আয়োজিত বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রীর পক্ষে পরিকল্পনামন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সম্মেলনে কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এম এ মান্নান বলেন, বাজেট ঘাটতির বিষয় নতুন কিছু নয়। উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বাজেটে ঘাটতি হবেই। বাজেটে ঘাটতির বিষয়টি ভবিষ্যতের ব্যাপার। সঠিক পরিকল্পনায় বাজেট ঘাটতি সমাধান করা হবে। তারপরও কিছু কিছু মানুষের প্রশ্ন থাকে। আমি বলব, গত কয়েক বছরে আমাদের সরকারের কার্যক্রম লক্ষ্য করলেই বোঝা যায় আমাদের সক্ষমতা আছে। তিনি বলেন, গত কয়েক বছরে আমরা সফলতার সঙ্গে বাজেট দিয়েছি এবং বাধা-বিপত্তি মোকাবিলা করেছি। আমাদের এমন কোন ভয়ের বিষয় নেই যে, আমরা বাজেট দিয়ে বাস্তবায়ন করতে পারব না। আত্মবিশ্বাস নিয়ে বাজেট দিয়েছি।

মন্ত্রী বলেন, অর্থের জোগান দিতেও কোন সমস্যা হওয়ার কথা না। কারণ আমাদের ঋণ পরিশোধ করার ভালো রেকর্ড আছে। আমরা সময়মতো ঋণের টাকা পরিশোধ করে যাচ্ছি। সার্বিকভাবে ইতিবাচক দেখি বলেই উন্নয়নের সব সূচক ধরে রাখতে পেরেছি। জিডিপি, মাথাপিছু আয়সহ সবকিছু ভালো অবস্থানে রয়েছে। সুতরাং আমি কোনভাবেই ভয় পাচ্ছি না।

আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী বলেন, অভ্যন্তরীণ খাত থেকে ঋণ নেয়া হবে এক লাখ ১৩ হাজার ৪৫৩ কোটি টাকা। বৈদেশিক খাত থেকে নেয়া হবে ৯৭ হাজার ৭৩৮ কোটি টাকা। অভ্যন্তরীণ খাতের মধ্যে ব্যাংকিং খাত থেকে ঋণের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৭৬ হাজার ৪৫২ কোটি টাকা, সঞ্চয়পত্র থেকে ৩২ হাজার কোটি টাকা ও অন্যান্য খাত থেকে নেয়া হবে ৫ হাজার এক কোটি টাকা।