• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ২৮ বৈশাখ ১৪২৮ ২৮ রমজান ১৪৪২

মাদক গ্রহণকারী কেউ সরকারি চাকরি পাবে না স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , রোববার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, মাদক গ্রহণ করে কেউ সরকারি চাকরি পাবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কড়া নির্দেশ, ডোপ টেস্ট ছাড়া কেউ যেন সরকারি চাকরিতে প্রবেশ করতে না পারে। জঙ্গি, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধ প্রধানমন্ত্রী যেমন জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছেন তেমন মাদকের বিরুদ্ধেও জিরো টলারেন্স নীতি দিয়েছেন। কেননা এই মাদক থেকে যুবসমাজ তরুণদের রক্ষা করতে না পারলে আমাদের যে লক্ষ্য ২০৪১, সেটা পূরণ হবে না। দেশের মানুষ কিন্তু আর আগের মতো খোলা জায়গায় ধূমপান করেন না। তাদের মধ্যে এক ধরনের সচেতনতাবোধ তৈরি হয়েছে। এই সচেতনতাবোধ সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে।

গতকাল আহ্ছানউল্লা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের মাদকবিরোধী কার্যক্রমের ৩০ বছর পূর্তি উদযাপন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের সভাপতি কাজী রফিকুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কারা মহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম মোস্তফা কামাল পাশা, মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক সঞ্জয় কুমার চৌধুরী, আহ্ছানউল্লা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফাজলি ইলাহী ও মিশনের স্বাস্থ্য সেক্টরের পরিচালক ইকবাল মাসুদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ঐশীর মতো আর যেন কেউ না হয়। ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনে অনেক নারীই সংশোধনের জন্য ভর্তি রয়েছেন। মেয়েরা মাদকাসক্তে জড়িয়ে পড়লে গোপন না করে সংশোধনের জন্য সংশোধনাগার রয়েছে সেখানে ভর্তি করে দিন। আমরা মাদক উৎপাদন করি না, তবু আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি। কিন্তু এভাবে চলতে পারে না। আমরা সচেতনতা তৈরি করার চেষ্টা করছি। তামাককে যেভাবে আমরা নির্মূল করতে পেরেছি। মাদকেও পারব।

অনুষ্ঠানে মাদকবিরোধী কার্যক্রমে অসামান্য অবদানের জন্য দু’জন (একজন প্রিন্ট ও একজন ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া) সাংবাদিককে পুরস্কার প্রদান করা হয়। ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন সমাজ উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি ১৯৯০ সাল থেকে এডিকশন ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড ইন্টিগ্রেটেড কেয়ার (আমিক) কর্মসূচির মাধ্যমে মাদক নিয়ন্ত্রণ ও এর অপব্যবহার রোধে কাজ করে আসছে। আহ্ছানিয়া মিশনের স্বাস্থ্য সেক্টরের এই মাদকবিরোধী কার্যক্রম ৩০ বছরে পদার্পণ করেছে।