• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১১ শ্রাবন ১৪২৮ ১৫ জিলহজ ১৪৪২

পাপুলদের অপকর্মের দায় সরকার এড়াতে পারবে না রিজভী

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১১ জুন ২০২০

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, (আওয়ামী লীগ) ক্ষমতাসীন হওয়ার পর থেকেই ক্ষমতার উৎস জনগণকেই বাংলাদেশের রাজনীতির অঙ্গন থেকে বিদায় করে পাপুলদের পরিচর্যা করা হয়েছে নিরন্তরভাবে। বিগত ১২ বছরে এদেশে ক্যাসিনো ক্যাপিটালিজমের জন্ম দেয়া হয়েছে এভাবেই। পাপুলদের অপকর্মের দায় সরকার এড়াতে পারবে না। গতকাল ভার্চুয়াল এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

রিজভী বলেন, মানবপাচার ও হাজার হাজার কোটি টাকা দুর্নীতির অভিযোগে কুয়েতে এমপি কাজী শহীদ ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যা বাংলাদেশের জন্য চরম লজ্জার হলেও সরকারের টনক নড়েনি। দেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে অনেকটাই অপরিচিত শুধু পাপুল একাই এমপি হননি, তার স্ত্রীকেও এমপি বানিয়েছেন, যাদের ধনস্ফীতির কোন বৈধ উৎস জানা যায় না। ক্ষমতা অন্ধ ওবায়দুল কাদের সাহেবরা ভার্চুয়াল সংবাদ ব্রিফিং করে অবান্তর কথা বলে বিরোধী দলের মুখ বন্ধ করার চেষ্টা করছেন। বিগত ১২ বছরে এদেশে ‘ক্যাসিনো ক্যাপিটালিজম’ এর জন্ম দিয়েছে সরকার। কুয়েতে লক্ষ্মীপুরের এমপি পাপুল গ্রেফতার তারই বহিঃপ্রকাশ। বর্তমান সরকার ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পর বাংলাদেশ থেকে টাকা পাচারের হিড়িক চলে। বর্তমানে এমপি হতে ভোটের প্রয়োজন হয় না। নির্বাচনের আগের রাতেই নির্বাচনে দায়িত্বরত কর্মকর্তা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা রাতের ভোটে এমপি বানিয়ে দেন। লক্ষ্মীপুরের সেই এমপি তারই একটি উদাহারণ।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, করোনা সংক্রামণ ও মৃত্যু থামছেই না। সরকারের ব্যর্থতায় প্রতিদিনই পালা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। একটি অক্সিজেন সিলিন্ডার, একটি ভেন্টিলেটরের জন্য মানুষ হাহাকার করছে। প্রতিবছরই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বাজেটে ১০ হাজার কোটি টাকা থেকে ২০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ থাকে। এই বরাদ্দের টাকা দিয়ে যদি স্বাস্থ্যখাতের উন্নতি করা হতো তাহলে কোভিড-১৯ মোকাবিলায় বাংলাদেশ মুখ থুবড়ে পড়ত না।

সরকারের মন্ত্রীদের বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, দেশজুড়ে একদিকে শোকার্ত মানুষের আহাজারি, অন্যদিকে চলছে ত্রাণচুরির মহোৎসব। অথচ ক্ষমতা-অন্ধ ওবায়দুল কাদের সাহেবরা নির্জন কক্ষ থেকে প্রায় প্রতিদিনই ভার্চুয়াল সংবাদ ব্রিফিং করে বিরোধী দলের মুখ বন্ধ করার চেষ্টা করছেন অবান্তর কথা বলে। সারাদেশে দলের নেতাকর্মীদের রাষ্ট্রযন্ত্র ব্যবহার করে সরকার দমন করছে বলেও অভিযোগ করেন রিজভী।