• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮ ২৯ রমজান ১৪৪২

ডিএনসিসির

নতুন মেয়রের উদ্যোগে ১৭ হাজার পরিবারকে খাদ্য সরবরাহ

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , শনিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২০

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) বিভিন্ন ওয়ার্ডে এক লাখ অসহায়, দুস্থ পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। ডিএনসিসি, ওয়ার্ড কাউন্সিলর, অন্য জনপ্রতিনিধির উদ্যোগে এসব পরিবারকে সহায়তা করা হয়। এর মধ্যে নবনির্বাচিত মেয়র মো. আতিকুল ইসলামের উদ্যোগে ১৭ হাজার পরিবারকে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। এছাড়া ডিএনসিসির উদ্যোগে এ পর্যন্ত মোট ৩৫ লক্ষ ৩৭ হাজার লিটার তরল জীবাণুনাশক প্রায় ৫ কোটি ৩১ লক্ষ বর্গফুট এলাকায় ছিটানো হয়েছে। ডিএনসিসির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। করোনাভাইরাস মোকাবিলায় দুস্থ ও অসহায় পরিবারের মাঝে ডিএনসিসির ত্রাণসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত থাকবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

ডিএনসিসি জানায়, গত বৃহস্পতিবার বিভিন্ন ওয়ার্ডে ৫ হাজার ৩৬টি অসহায়, দুস্থ পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। এদিন ডিএনসিসির বিভিন্ন ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের উদ্যোগে ৩ হাজার ৪৩৭টি পরিবারের মাঝে চাল, ডাল, পিয়াজ, আলু, সাবান লবণ ইত্যাদি বিতরণ করা হয়।

এছাড়া জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) অর্থায়নে পরিচালিত ডিএনসিসির ‘প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পের’ আওতায় কড়াইল বস্তি ও তেজগাঁও সাততলা বস্তিতে ১ হাজার ৩৭৩টি পরিবারের প্রতিটিকে চাল ১২ কেজি, আটা ৭ কেজি, চিনি ২ কেজি, তেল ২ লিটার, গুড়া দুধ ১ কেজি, সুজি ঙ্গ কেজি, পিয়াজ ২ কেজি, আলু ২ কেজি, মসুর ডাল ২ কেজি, বুটের ডাল ১ কেজি করে বিতরণ করা হয়। এ প্রকল্পের মাধ্যমে মোট ৫ হাজার পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হবে।

এ প্রকল্পের আওতায় ইতোমধ্যে ডিএনসিসির ১৫টি ওয়ার্ডে মোট ৪ লক্ষ ১৫ হাজার ৪১৫টি সাবান বিতরণ করা হয় এবং ২৩০টি স্থানে হাত ধোয়ার পয়েন্ট স্থাপন করা হয়। এছাড়া হটলাইনে কলের ভিত্তিতে ডিএনসিসি থেকে আজ ২৫টি পরিবারকে ত্রাণসামগ্রী পৌঁছে দেয়া হয়।

ডিএনসিসি আরও জানায়, গত বৃহস্পতিবার ১০টি ওয়াটার বাউজারের (পানির গাড়ি) সাহায্যে ১ লক্ষ ৫৪ হাজার লিটার ব্লিচিং পাউডার মিশ্রিত জীবাণুনাশক তরল ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন এলাকার প্রধান প্রধান সড়ক, ফুটপাত, ফুটওভারব্রিজ, কোয়ারেন্টাইন্ড এলাকা, গুরুত্বপূর্ণ হাসপাতাল ও উন্মুক্ত স্থানে ছিটানো হয়।

এদিন উত্তরা ৭, ১০নং সেক্টর, মিরপুর-১, কাজীপুরা, গুদারাঘাট, মিরপুর সাড়ে ১১, পল্লবী, পুরবী হল, মিরপুর-১২, মিরপুর-২, মিরপুর-১৪, উত্তর কাফরুল, দক্ষিণ কাফরুল, ইব্রাহিমপুর, টোলারবাগ, মোহাম্মদপুর, জেনেভা ক্যাম্প, জাকির হেসেন রোড, টাউনহল, বসিলা রোড, শিশু হাসপাতাল, পঙ্গু হাসপাতাল, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল, গণভবনসংলগ্ন এলাকা, গুলশান, বারিধারা, বাড্ডা, বাংলামটর, ইস্কাটন রোড, উত্তর বাড্ডা, মিরপুর ৮নং কমিউনিটি সেন্টারসংলগ্ন বিভিন্ন সড়ক, মিরপুর-১৩ ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় তরল জীবাণুনাশক ছিটানো হয়।