• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবন ১৪২৮ ১৮ জিলহজ ১৪৪২

তিস্তার পানি বাড়ছে, ডুবে যাচ্ছে বসতবাড়ি ফসলি জমি

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , বুধবার, ২৪ জুন ২০২০

image

সুন্দরগঞ্জে তিস্তার পানি বৃদ্ধি অব্যাহত। ডুবে গেছে বসতবাড়ি -সংবাদ

উজান থেকে নেমে আসা ঢল এবং অবিরাম বর্ষণে তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। বসতবাড়িসহ ডুবে গেছে উঠতি তোষাপাট এবং নানাবিধ ফসলের ক্ষেত। গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার তারাপুর, বেলকা, হরিপুর, চন্ডিপুর, শ্রীপুর ও কাপাসিয়া ইউনিয়নের ওপর দিয়ে প্রবাহিত তিস্তার নদীর বিভিন্ন চরে কমপক্ষে ৬ হাজার পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। গত রোববার বিকেল হতে হঠাৎ পানি বৃদ্ধি পেতে থাকে। গত ৪৮ ঘণ্টায় পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্টে পানি বিপদসীমা ছুঁই ছুঁই করছে। হরিপুর চরের কৃষক আবদুল ওয়াহেদ জানান গত মঙ্গলবার সকালে তার ঘরের ভিতরে হাঁটু পানি উঠছে। এছাড়া তার ৩ বিঘা জমির তোষাপাট এবং ১ বিঘা জমির বাদাম ক্ষেত ডুবে গেছে। হরিপুর ইউপি চেয়ারম্যান নাফিউল ইসলাম জিমি জানান, তার ইউনিয়নের কমপক্ষে ৮ পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। তিনি বলেন, পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে আগামী ২৪ ঘণ্টায় হাজার হাজার পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়বে। উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সৈয়দ রেজা-ই মাহমুদ জানান, গত ৪৮ ঘণ্টায় ৬ একর জমির তোষাপাট ক্ষেত পানিতে ডুবে গেছে। উপজেলা নিবার্হী অফিসার কাজী লুতফুল হাসান জানান, গতকাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের তথ্য মোতাবেক উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্টে ২২ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। যা বিপদসীমার খুব কাছাকাছি। তবে এখন পর্যন্ত পানিবন্দী পরিবারের তালিকা নিরুপন করা হয়নি।