• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ৯ শ্রাবন ১৪২৮ ১৩ জিলহজ ১৪৪২

অবশেষে উদ্ধার মন্ত্রীর ছিনতাই হওয়া আইফোন

৫ ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , মঙ্গলবার, ২০ জুলাই ২০২১

অবশেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানের ছিনতাই হওয়া আইফোন সেটটি উদ্ধার করা হয়েছে। আর ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ৫ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন টেকলোলজিস্ট এক্সপার্টও রয়েছে।

গতকাল ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) রমনা বিভাগের ডিসি মো. সাজ্জাদুর রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা ছিনতাইকারীরা হলো মো. সগির, মো. সুমন মিয়া, মো. জাকির, মোহাম্মদ হামিদ আহমেদ সোহাগ ওরফে আরিফ ও মো. জীবন।

তাদের কাছ থেকে একটি মোটরসাইকেল, দুটি আইফোন, বিভিন্ন মডেলের ১০টি ফোন, একটি ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোন সেটের ভাঙা বিভিন্ন যন্ত্রাংশ উদ্ধার করা হয়েছে।

গতকাল ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক প্রেস বিফ্রিংয়ে রমনা বিভাগের ডিসি সাজ্জাদুর রহমান জানান, গত রোববার থেকে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ধারাবাহিক অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। উদ্ধার করা হয় মন্ত্রীর আইফোনসহ একাধিক মোবাইল সেট।

মন্ত্রীর ফোন উদ্ধার সম্পর্কে ডিসি বলেন, গত ১২ জুলাই সন্ধ্যা প্রায় ৬টার দিকে রাজধানীর ধানমন্ডি সাত মসজিদ রোড এনসিসি ব্যাংকের সামনে থেকে নুসরাত জাহান নামে একজন নারী সদস্যের ভ্যানিটি ব্যাগ দু’জন ছিনতাইকারী মোটরসাইকেলযোগে ছিনতাই করে নিয়ে যায়। যার মধ্যে তার ব্যবহৃত একটি আইফোন ছিল। এ ঘটনায় ধানমন্ডি থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।

পুলিশ এ মামলাটি তদন্ত করতে গিয়ে প্রথমে সগির ও সুমন নামে দু’জনকে তাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেলসহ গ্রেপ্তার করে। তারা মোটরসাইকেলযোগে ছিনতাই করত। তাদের দেয়া তথ্যমতে, জাকির নামে আরেক ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করে। সে মূলত অভিযোগকারী নারী সদস্যের আইফোনটি কিনে নিয়েছিল। এরপর জাকিরের দেয়া তথ্য মতে, টেকনোলজিস্ট এক্সপার্ট আরিফকে গ্রেপ্তার করে। আরিফের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় মন্ত্রীর মোবাইল ফোন।

আরিফ মূলত বিভিন্ন সফটওয়ার ব্যবহার করে আইফোনসহ বিভিন্ন স্মার্টফোন আনলক ও আইএমইআই পরিবর্তন করে থাকে। পরবর্তী সময়ে অন্য পক্ষের মাধ্যমে তা বিক্রি করে দেয়। কিন্তু আরিফ মন্ত্রীর আইফোন আনলক করার পর মন্ত্রীর ছবি দেখে সেটা বিক্রি না করে তার কাছেই রেখে দেয়।

পুলিশ আরিফের হেফাজত হতে আইএমইআই পরিবর্তনে ব্যবহৃত ল্যাপটপ, ১০টি বিভিন্ন মডেলের স্মার্টফোন ও একাধিক মোবাইলের ভাঙা অংশ উদ্ধার করে। আরিফের ল্যাপটপে থাকা বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত যাচাই-বাছাই ও ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদাবর এলাকা থেকে জীবন নামের একজনকে গ্রেপ্তার করে। যার হেফাজত হতে উদ্ধার করা বাদী নুসরাত জাহানের ছিনতাই হওয়া আইফোন।

উল্লেখ্য, গত ২১ মে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান নিজ দপ্তর থেকে বেইলি রোডের বাসায় ফেরার পথে বিজয় সরণি ট্রাফিক সিগন্যালে সন্ধ্যা সাতটার দিকে গাড়ির জানালা খুলে মোবাইল ফোনে কথা বলার সময় এক ছিনতাইকারী মন্ত্রীর মোবাইল নিয়ে পালিয়ে যায়।