• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ৯ শ্রাবন ১৪২৮ ১৩ জিলহজ ১৪৪২

জর্ডানের বাদশাহর হোয়াইট হাউজে আমন্ত্রণ

| ঢাকা , মঙ্গলবার, ২০ জুলাই ২০২১

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ক্ষমতায় আসার পর হোয়াইট হাউজে প্রথম আরব নেতা হিসেবে আমন্ত্রণ পেলেন জর্ডানের বাদশাহ আব্দুল্লাহ (৫৯)। তিনি গত ২১ বছর ধরে জর্ডানের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত আছেন। ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়নের বিষয়ে হোয়াইট হাউজে বাইডেনের সঙ্গে আব্দুল্লাহর এ বৈঠক হয়েছে।

জর্ডানের সাবেক গোয়েন্দাপ্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জাউদ আল-শরাফত বলেন, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে বাদশাহ আব্দুল্লাহর সম্পর্ক মোটেও ভালো ছিল না। আল-জাজিরা

বিশেষ করে ২০১৭ সালে জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র স্বীকৃতি দেয়ার পর জর্ডানের বাদশাহ প্রকাশ্যে তার নিন্দা জানিয়ে বলেছিলেন, ট্রাম্পের এ পদক্ষেপ এ অঞ্চলের শান্তি নষ্ট করার জন্য যথেষ্ট।

উল্লেখ্য, ১৯৯৪ সালে ইসরায়েলের সঙ্গে জর্ডান সম্পর্ক স্থাপন করে। কিন্তু ২০২০ সালে ট্রাম্পের মধ্যস্থতায় যখন বাহরাইন, আমিরাত, সুদান ও মরক্কো ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার উদ্যোগ নেয়, তখন ওই প্রচেষ্টার বিরোধিতা করেন বাদশাহ আব্দুল্লাহ। জর্ডানের বাদশাহ আব্দুল্লাহর সঙ্গে সম্প্রতি গোপন বৈঠক করেছেন ইসরায়েলের নতুন প্রধানমন্ত্রী নেফতালি বেনেট। হারেৎজসহ ইসরায়েলের বেশ কয়েকটি পত্রিকায় এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। এতে বলা হয়, দুই সপ্তাহ আগে আম্মানে ওই গোপন বৈঠক হয় দুই নেতার মধ্যে।

ইসরায়েলি পত্রিকার খবরে বলা হয়, পুরনো সম্পর্ক নতুন করে ঝালিয়ে নেয়ার জন্য নবনির্বাচিত ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী আম্মানে ওই বৈঠক করেন।

হারেৎজের প্রতিবেদনে বলা হয়, জর্ডানের রাজধানী আম্মানে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কোন্নয়নের জন্য দুই দেশের রাষ্ট্রপ্রধান ওই বৈঠক করেন।

সম্প্রতি পবিত্র মসজিদ আল-আকসায় মুসল্লিদের ওপর বর্বর হামলা এবং গাজায় নিরপরাধ ফিলিস্তিনিদের ওপর নির্বিচার বোমা হামলার ঘটনায় ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হয় জর্ডানের। এতে আরও বলা হয়, দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক আরও জোরদার করতে দুই নেতা বৈঠকে আলোচনা করেন।