• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ৪ আষাড় ১৪২৮ ৬ জিলকদ ১৪৪২

উত্তরায় বেপরোয়া বাসের ধাক্কায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০

রাজধানীর উত্তরায় বেপরোয়া গতির বাসের ধাক্কায় দুই মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন মোটরসাইকেল চালক রাসেল (২২) ও আরোহী ফয়সাল (২২)। গতকাল দুপুরে উত্তরা বিএনএস সেন্টারের সামনে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এরপর বাসটি দ্রুতগতিতে পালানোর চেষ্টা করলে পুলিশ ধাওয়া করে চালকসহ হাই চয়েচ পরিবহনের বাসটি আটক করে। অপরদিকে গুলিস্তানে বাসের ধাক্কায় মাহবুবুর রহমান (৫৬) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি তপন চন্দ্র সাহা জানান, ঢাকা মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে টাঙ্গাইলের উদ্দেশে যাচ্ছিল হাই চয়েচ পরিবহনের ওই বাসটি (কুষ্টিয়া ব-১১-০০৪১)। উত্তরা আজমপুরের পর থেকে বাসটি বেপরোয়া গতিতে ছুটতে থাকে। আজমপুর থেকে কয়েকটি যানবাহনকে পেছনে ফেলে যাওয়ার সময় বিএনএস সেন্টারের সামনে একটি মোটরসাইকেলকে পেছন থেকে সজোরে ধাক্কায় দেয়। এতে মোটরসাইকেল আরোহী দু’জন ছিটকে রাস্তার পাশে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় রাসেল। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ফয়সালকে উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকেও মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে দুর্ঘটনার পর বাঁচার জন্য বাসটি আরও গতিতে পালানোর চেষ্টা করে। তখন পুলিশ তার পেছনে ধাওয়া করে হাউজবিল্ডিংয়ের কাছ গিয়ে থেকে বাসটি থামাতে সমর্থ হয়। চালক রবিউল (৪০) ও হেলপার আবদুল সালামকে (৪৫) বাস থেকে লাফিয়ে পালানোর চেষ্টা করলেও পুলিশ তাকে ধরে ফেলে। সন্ধ্যায় এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহতের বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এদিকে অপর ঘটনায় গুলিস্তান গোলাপ শাহ মাজারের সামনে বাসের ধাক্কায় মাহবুবুর রহমান (৫৬) নামের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে বিকেল ৪টার দিকে তার মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় চালকসহ বাসটি আটক করেছে পুলিশ।

নিহতের ছেলে অর্প বলেন, তার বাবা একজন ঠিকাদার ছিলেন। এক আত্মীয়কে পৌঁছে দিয়ে বাসায় ফিরছিলেন তিনি। গোলাপশাহ মাজারের কাছে রাস্তা পার হতে গেলে ভিক্টর পরিবহনের একটি বাস তাকে ধাক্কা দেয়। পরে পথচারীরা উদ্ধার করে তাকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তিনি আরও জানান, মগবাজার মীরবাগে পরিবার নিয়ে থাকেন তারা।

এদিকে রাজধানীর কুর্মিটোলায় একটি প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে হঠাৎ ফুটপাতে উঠে গেলে মা-শিশুসহ ১০ জন পথচারী আহত হয়েছে। গতকাল দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

ক্যান্টনমেন্ট থানার ওসি কাজী শায়ান হক জানান, প্রাইভেটকারটি এয়ারপোর্ট থেকে বনানীর দিকে যাচ্ছিল। পথচারীরা তাৎক্ষণিক চালককে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেছে। তিনি আরও জানান, আহতদের কয়েকজনকে কুর্মিটোলা হাসপাতালে এবং তিনজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঢাকা মেডিকেলে ভর্তিদের মধ্যে একই পরিবারের দুইজন আছে। তারা মা- মেয়ে। মা তামান্না আক্তার (৩৫) ও মেয়ে সুমাইয়া আক্তার (৭)। আহত অপরজন হলেন জাহিদা বেগম (৪৮)।