• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮ ২৯ রমজান ১৪৪২

৮৫ বর্ষের মানুষমারা সর. প্রাথ. স্কুল এখন মানুষগড়া

| ঢাকা , রোববার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০

দীর্ঘ ৮৫ বছর পর পরিবর্তন হলো নীলফামারী সদর উপজেলার মানুষমারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নামকরণ। প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ৩ ফেব্রুয়ারি জারিকৃত এক প্রজ্ঞাপনে এ প্রতিষ্ঠানের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে মানুষগড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। দীর্ঘ ৭যুগ পরে কলঙ্কিত এই নামটি প্রতিষ্ঠানের মুল ফলক থেকে মুছে ফেলতে আাদেশ দিয়েছে মন্ত্রনালয়।

পঞ্চপুকুর ইউনিয়নের আরাজি মানুষমারা মৌজায় ১৯৩৫ সালে স্থানীয় কিছু শিক্ষানুরাগী শিক্ষার আলোয় আলোকিত করতে ও শিক্ষায় সমৃদ্ধ সমাজ গঠনে প্রতিষ্ঠা করেন প্রাথমিক বিদ্যালয়টি। প্রতিষ্ঠার পর হতে বিদ্যালয়টিতে শিক্ষার আলো নিয়ে স্থানীয় সকল শ্রেণির মানুষের সন্তান উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়েছে। বর্তমানে বিদ্যালয়টিতে প্রধান শিক্ষক ও ৩ জন সহকারি শিক্ষক ও মাত্র ৯২ জন শিক্ষার্থী দিয়ে চলছে পাঠদান কার্যক্রম।

মানুষমারা নামকরণ নিয়ে স্থানীয় এলাকাবাসী বড়ভিটা পশ্চিমপাড়া হুসাইনিয়া আলিম মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ এ.বি.এম জয়নুল আবেদীনসহ অনেকেই জানান, পূর্ব পুরষের কাছ থেকে শুনেছি, ইংরেজ শাষনামলে এখানকার মানুষকে জোর পূর্বক নীলচাষের জন্য করা হতো নির্মম নির্যাতন। নির্যাতনের মাত্রা এতই বেশী ছিলো যে এক সময় এসব নিরীহ মানুষ ব্রিটিশ নীলকরদের অন্যায় অত্যাচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ গড়ে তুলে। তাদের প্রতিবাদে অত্যাচারীরা বিভিন্ন এলাকা থেকে ওই এলাকায় সংঘটিত হয়ে আশ্রয় নেয়ার চেষ্টা করে। এ বিষয়টি নীলকররা জানতে পেরে তাদের বিরুদ্ধে গড়ে তুলে কঠোর প্রতিরোধ। এতে উভয় পক্ষের মধ্যে ঘটে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ। এ সংঘর্ষে মারা যায় অনেক নীরস্ত্র প্রতিবাদী মানুষ ও ব্রিটিশ নীলকররা। এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষক কামরুজ্জামান শাহ বলেন, অবশেষে বিদ্যালয়টির নামকরণ পরিবর্তন হওয়ায় আমরা গর্বিত ও আনন্দিত। দীর্ঘদিন পরে হলেও এ কলঙ্কিত নামটি পরিবর্তনের গেজেট প্রকাশিত হওয়ায় কর্তৃপক্ষসহ সকলকে অভিনন্দন। এ বিষয়ে সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার শেখ মোঃ মাহতাবুর রহমান জানান, প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব জাহানারা রহমান স্বাক্ষরিত ৩ ফেব্রুয়ারি জারীকৃত প্রজ্ঞাপনে নাম পরিবর্তন করার আদেশ পাওয়া গেছে।