• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮ ২৯ রমজান ১৪৪২

হামলায় হাসপাতালে কাতরাচ্ছে মুক্তিযোদ্ধা, অবরুদ্ধ পরিবার

৫ দিনেও গ্রেফতার নেই

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, কুমিল্লা

| ঢাকা , মঙ্গলবার, ০১ সেপ্টেম্বর ২০২০

‘একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহ্বানে জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করেছি। সেই স্বাধীন দেশের রাস্তায় আজ আমার রক্ত ঝরেছে। পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়েই তারা ক্ষান্ত হয়নি, বাড়ির সামনে কাঁটাতার দিয়ে দীর্ঘবছরের চলাচলের পথও বন্ধ করে দিয়েছে। এবার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের প্রাণনাশের হুমকিও দিচ্ছে। এই বৃদ্ধ বয়সে এসে এমন ঘটনা ঘটবে, তা কল্পনাও করিনি।’ গত সোমবার দুপুরে এভাবেই আবেগাপ্লুত হয়ে ক্ষোভের সাথে কথাগুলো বলেন কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ৫ দিন ধরে চিকিৎসাধীন জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার রাজারখলা গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা সামছুল হক। এ ঘটনায় ওই মুক্তিযোদ্ধা বাদী হয়ে সদর দক্ষিণ মডেল থানায় ৭ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা দায়ের করেন। তবে সোমবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি। অভিযোগে জানা যায়, সদর দক্ষিণ উপজেলার রাজারখলা গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা সামছুল হকের ছেলে মো. সেলিম মিয়া কুমিল্লার আদালতের আইনজীবী। গত ১৬ আগস্ট জেলার বরুড়া উপজেলার নাটেহর গ্রামের আ. অদুদের মেয়ে ইসরাত জাহান রীমার আইনজীবী নিযুক্ত হয়ে বিরোধ নিষ্পত্তির লক্ষ্যে ১৫ দিনের সময় বেঁধে দিয়ে একই গ্রামের মৃত সুজত আলীর ছেলে আলফু মিয়াকে লিগ্যাল নোটিস প্রদান করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে সেলিম মিয়ার বাড়ির চলাচলের রাস্তা কাটা তারের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়। এ ঘটনায় গত ২৬ আগস্ট সদর দক্ষিণ মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। এ বিষয়ে সদর দক্ষিণ মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কমল কৃষ্ণ ধর জানান, এ ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।