• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮ ২৯ রমজান ১৪৪২

সোনা চোরাচালান যশোরে দুই আসামির যাবজ্জীবন দণ্ড

সংবাদ :
  • যশোর অফিস

| ঢাকা , বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০

সোনা চোরাচালান মামলায় যশোর আদালত দুই আসামিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দিয়েছেন। গত রোববার যশোরের জেলা ও দায়রা জজ এবং স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের বিচারক সিনিয়র দায়রা জজ মো. ইখতিয়ারুল ইসলাম মল্লিক এ রায় প্রদান করেছেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো, মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট গ্রামের সরোয়ার কাজীর ছেলে আনিসুর রহমান এবং ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার বড় পাল্লা গ্রামের মনিরুজ্জামান মঞ্জু খালাশীর ছেলে তানভীর জামান। সরকার পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেছেন পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এম ইদ্রিস আলী। তিনি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, ২০১৯ সালের ১৬ জুন সকাল ৬টার দিকে যশোর ৪৯ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)’র ব্যাটালিয়নের নায়েব সুবেদার আব্দুল মালেকের নেতৃত্বে একটি টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বেনাপোলের আমড়াখালী চেকপোস্টে অভিযান চালান। এসময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা দেশ ট্রাভেলসের একটি বাসে তল্লাশি চালানো হয়। ওই বাস থেকে আনিসুর রহমান ও তানভীর জামানকে আটক করা হয়। পরে তাদের দেহ তল্লাশি করে পরিহিত প্যান্টের কোমরে বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে রাখা ১৩টি করে মোট ২৬টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়। যার ওজন ৩ কেজি ৩২ গ্রাম। সোনার বারগুলো তারা ভারতে পাচারের জন্য নিয়ে যাচ্ছিল।

এ ঘটনায় নায়েব সুবেদার আব্দুল মালেক বেনাপোল পোর্ট থানায় ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫-বি এর ১ (এ) ধারায় মামলা করেন।

সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে এ মামলার আসামি আনিসুর রহমান ও তানভীর জামানকে দোষী সাব্যস্ত করে বিচারক তাদের প্রত্যেককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানার আদেশ দেন। এরপর দণ্ডপ্রাপ্তদের জেলহাজতে প্রেরণের আদেশ দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি জব্দকৃত সোনা রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াফত করা হলো।