• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ২৮ বৈশাখ ১৪২৮ ২৮ রমজান ১৪৪২

রায়পুরায় চরসুবুদ্ধি খালের কালভার্টের মুখ বন্ধ করে দিয়েছে ইউপি চেয়ারম্যান

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, রায়পুরা (নরসিংদী)

| ঢাকা , শনিবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২০

image

রায়পুরা (নরসিংদী) : চরসুবু্িদ্ধ খালে কালভার্টের মাথায় বালু ফেলে পানি প্রবাহ বন্ধ করে দিয়েছেন হাইরমারা ইউপি চেয়ারম্যান -সংবাদ

উপজেলার চরসুবুদ্ধি ইউনিয়নের চরসুবুদ্ধি বাজরের পূর্বপাশের কয়েক শ’ বছরের পুরনো খাল খালাটি সংস্কার নেই দীর্ঘদিন। বিকল্প কোন খাল না থাকায় চরসুবুদ্ধি ইউনিয়নের অধিকাংশ এলাকার পানি নিষ্কাশন হয় এ খাল দিয়ে। এছাড়াও খালের মাথায় হাইরমারা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মাহফুজুল হক বাবলা তার নিজের জায়গা দাবি করে একটি কালভার্টের মাথায় বালু ফেলে দেয়। ফলে আগামী বর্ষা মৌসুমে পানি নিষ্কাশনে বিঘ্নে ঘটতে পারে। অপরদিকে স্থানীয় কিছু ব্যক্তি খালটির বাজারের অংশ দখল করে নির্মাণ করেছেন ৮-১০টি দোকান ঘর। স্থানীয় সচেতন ব্যক্তিরা জানান, খালটি দখল মুক্ত করে সংস্কার করা না হলে আগামী বর্ষা মৌসুমে দুটি ইউনিয়নের ফসলি জমি ও কয়েকটি গ্রামের হাজারো মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। দ্রুত খালটি খনন করে আগের রুপ ফিরিয়ে আনার দাবি জানান এলাকাবাসী। এ ব্যাপারে হাইরমার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মাহফুজুল হক বাবলা বলেন, খালের মাথায় আমার জমি। বালু ফেলার পর আমি পাইপ দিয়ে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করে দিবো। এছাড়াও খালটির ব্যাপারে আমিই উপজেলা সমন্বয় সভায় প্রস্তাব করেছি। এ ব্যাপারে চরসুবুদ্ধি ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মহাসেনুর রহমান খান বলেন,খালটির ওপর অবৈধ স্থাপানা উচ্ছেদের ব্যাপারে সদ্য বিদায়ী উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি খালটি পরিদর্শন ও স্থানীয়দের সঙ্গে মিটিংও করেছিলেন। এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মাহমুদুর রহমান খন্দকার বলেন, যদি কেউ খাল দখল করে থাকে তাহলে সরেজমিনে গিয়ে খাল দখল মুক্ত করার ব্যবস্থা করব। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, বালি ফেলে কালভার্টের মুখ বন্ধ করার বিষয়টি তিনি জানেন না। তবে খাল থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে সরকারি আওতায় আনার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া আছে।