• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮ ২৯ রমজান ১৪৪২

মনোবলই বল

কব্জিতে কলম চেপে পরীক্ষায় মিনারা

সংবাদ :
  • হুমায়ুন কবির সূর্য্য, কুড়িগ্রাম

| ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০

image

আর দশজনের সঙ্গে কব্জিতে কলম চেপে এসএসসি (দাখিল) পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে মিনারা খাতুন। কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলার কাচকোল এলাকার বাসিন্দা দিনমজুর রফিকুল ইসলামের দুই কন্যা সন্তানের মধ্যে ছোট সে। জন্মের পর মাকে হারিয়েছে। সরকারি জায়গায় বসতভিটা হওয়ায় ওয়াপদা বাঁধ থেকে বিতাড়িত হয়ে এখন অন্যেও জমিতে আশ্রয় নিয়েছে। এমন প্রতিকূল পরিবেশের মধ্যেও দৃঢ় মনোবল নিয়ে পরীক্ষা দিচ্ছে সে। তার এই অদম্য উৎসাহ দেখে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন মাদ্রাসার শিক্ষকরাও।

জানা যায়, দু’হাতের বাঁকা কব্জি নিয়ে জন্মায় মিনারা। আঙ্গুলও নেই। ফলে প্রতিবন্ধীকতাকে জয় করে দু’হাতের কব্জি দিয়ে শুরু করে লেখালেখির প্রাকটিস। এরপর ভর্তি হয় বাড়ির পাশে কেডি ওয়ারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ও পরে কাচকোল খামার সখিনা ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসায়। সেখান থেকে ৫ম শ্রেণির সমাপনী (পিইসি) ও জুনিয়র সার্টিফিকেট (জেডিসি) পাশ করে ভাল ফলাফলের মাধ্যমে। এখন সে এসএসসি (দাখিল) দিচ্ছে। দরিদ্র এই পরিবারে মিনারার লেখাপড়ার জন্য পাশে দাঁড়িয়েছে সমাজসেবা অধিদপ্তর। তাদের বৃত্তিতেই চলছে তার টানাটানির শিক্ষা জীবন।

মিনারা খাতুন জানায়, সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন। আমি যেন বড় হতে পারি এবং মানুষের সেবা করতে পারি এবং প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়াতে পারি। মাদ্রাসার সুপার মাওলানা আইয়ুব আলী আকন্দ জানান, মিনারা ছাত্রী হিসেবে ভাল। মাদ্রাসায় লেখা-পড়ার সকল প্রকার দায়িত্ব আমরা নিয়েছিলাম। রাজারভিটা ইসলামিয়া ফাযিল মাদ্রাসা কেন্দ্রের কেন্দ্র সচিব অধ্যক্ষ মো. মিনহাজুল ইসলাম বলেন, দুই হাতের সাহায্যে লিখে মিনারা ভাল পরীক্ষা দিচ্ছে। মেয়েটি ফলাফল ভাল করবে বলে আমরা আশাবাদী।

এ ব্যাপারে চিলমারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ ডাব্লিউ এম রায়হান শাহ্ বলেন, আমি দেখিছি এছাড়াও আমার মনে হয়েছে তার মাঝে অনেক গুণ রয়েছে সে ভাল কিছু করতে পারবে। তিনি আরও বলেন আমরা চেষ্টা করব তার সহযোগিতার করাসহ তার পাশে থাকার।