• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮ ২৯ রমজান ১৪৪২

অনুমোদন নেই : ইন্টার্নশিপ বঞ্চিত শাহমখদুম মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা

সংবাদ :
  • জেলা বার্তা পরিবেশ, রাজশাহী

| ঢাকা , মঙ্গলবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২০

image

রাজশাহী : রাজশাহীর শাহমখদুম মেডিকেল কলেজ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন -সংবাদ

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) অনুমোদন ছাড়াই শিক্ষার্থী ভর্তি করেছে রাজশাহীর বেসরকারি শাহমখদুম মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ। এখন শিক্ষার্থীরা এমবিবিএস পাস করলেও অনুমোদন না থাকায় ইন্টার্নশিপ করতে পারছেন না। প্রায় ২০০ শিক্ষার্থীর স্বপ্ন ভেঙ্গে চুরমার হতে চলেছে।

হতাশায় প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকেরা গত শনিবার দুপুরে নগরীর রেলগেট এলাকায় প্রতিবাদ সমাবেশ করেন। গত রোববার ক্যাম্পাসে তারা ক্লাস বর্জন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেন। শিক্ষার্থীরা জানান, সাত বছর ধরে প্রতিষ্ঠানটিতে ধারাবাহিকভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হলেও এখনো বিএমডিসির অনুমোদন মেলেনি। ফলে চারজন শিক্ষার্থী এমবিবিএস পাস করলেও ইন্টার্নশিপ করতে পারছেন না।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা জানান, এই কলেজের প্রথম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের মধ্যে চারজন এমবিবিএস পাস করেন গত বছরের মার্চে। কিন্তু কলেজটির বিএমডিসির অনুমোদন না থাকায় ওই শিক্ষার্থীরা গত এক বছর ধরে ইন্টার্নশিপ করতে পারছেন না। তারা প্রাক্টিস করারও অনুমতি পাচ্ছেন না। এখন পর্যন্ত মোট সাতটি ব্যাচে প্রায় ২০০ শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয় কলেজটিতে। এর মধ্যে প্রথম ২ ব্যাচ ও চতুর্থ ব্যাচে ২৫ জন করে এবং পরবর্তীতে ৫০ জন করে শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমোদন মেলে। তবে কলেজটিতে শুরু থেকেই অনুমোদন না থাকা, শিক্ষক সংকট এবং হাসপাতালে রোগী না থাকায় আসন ফাঁকায় থেকে যায়। ফলে এখন পর্যন্ত অনিশ্চিত ভবিষ্যত নিয়ে প্রায় ২০০ শিক্ষার্থী রয়েছেন কলেজটিতে।

কলেজের এমবিবিএস পাস করা শিক্ষার্থী মামুনুর রশিদ বলেন, নানা সঙ্কটের মধ্যেও আমি গতবছর ১২ মার্চ এমবিবিএস পাস করেছি। কিন্তু কেন ইন্টার্নশিপ করতে পারছি না, সেটি জানতে বার বার কলেজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের কাছে গিয়েছি। কিন্তু তারা আমাকে কোন সদুত্তর দিতে পারেননি। উল্টো আমাকেই নানাভাবে হুমকি দেয়া হয়েছে, যেন আমি বিষয়টি নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি না করি।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, বিএমডিসির অনুমোদন পেতে কর্তৃপক্ষ যেন দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করে তার জন্য তারা আন্দোলন শুরু করেছেন। তাদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা ক্লাসে ফিরবেন না। প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মনিরুজ্জামান স্বাধীন বলেন, বিএমডিসির অনুমোদনের জন্য আবেদন করা হয়েছে। তারা পরিদর্শন করেছেন। কিছু শর্ত দিয়েছে। সেগুলো পূরণের চেষ্টা চলছে। হয়তো দ্রুত আমরা অনুমতি পেয়ে যাব।