• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯, ৭ চৈত্র ১৪২৫, ১৩ রজব ১৪৪০

ভূমিতে নারীর অধিকার নিশ্চিত করুন

| ঢাকা , শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০১৯

গত বুধবার সিরডাপ মিলনায়তনে ‘নারীর ভূমি অধিকার, কৃষিতে অংশগ্রহণ এবং নারীর নিরাপত্তা’ শীর্ষক একটি সেমিনারের আয়োজন করা হয়। এতে বক্তারা বলেছেন, ভূমিতে নারীর অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। কৃষির ১৭টি ধাপে নারীরা সরাসরি কাজ করলেও কৃষিতে তাদের মালিকানা আছে মাত্র ১৮ ভাগ। তাও আবার নামমাত্র, বাস্তবে যার কোনো অস্তিত্ব নেই। মঞ্জুরির ক্ষেত্রেও নারীর প্রতি বৈষম্য হচ্ছে।

নারীর অধিকার আদায়ে নারী-পুরুষকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে। নইলে নারীর সত্যিকারের মুক্তি ঘটবে না। কৃষিতে নারীর অধিকার ও স্বীকৃতি নিশ্চিত করতে পারলে তাদের প্রকৃত মূল্যায়ন হবে। সমাজের অর্ধেকেরও বেশি নারী সমাজ উন্নয়নে কাজ করে। কিন্তু তাদের অনেক অধিকার আজও নিশ্চিত করা যায়নি। নারীরা এখনও নানা ক্ষেত্রে বৈষম্যের শিকার। বর্তমানে নারীরা অনেক ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত গ্রহণে এগিয়ে থাকলেও সমাজে তারা বিভিন্ন সময় নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে; যা নারীদের বিভিন্ন অর্জনকে ম্লান করে দিচ্ছে। কৃষি খাতে নারীদের কাজের স্বীকৃতি না থাকায় নারী কৃষকরা রাষ্ট্রীয় সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছে না। তাদের নিজস্ব জমিজমা না থাকায় তারা ভূমিহীনদের কাতারেই রয়ে যাচ্ছে। সরকার তাদের খাসজমি বরাদ্দ দিয়ে এ বৈষম্য কমিয়ে আনতে পারে বলে আমরা মনে করি।

নারীরা একসময় কৃষিতে প্রায় শতভাগ অবদান রেখেছে। বর্তমান বাস্তবতায় পুরুষরা কৃষির পরিবর্তে নতুন নতুন পেশায় যুক্ত হচ্ছে। ফলে কৃষিতে নারীর অংশগ্রহণ বেড়েছে। কিন্তু পুরুষতান্ত্রিক সমাজ কৃষিতে নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে দিচ্ছে না। দেখা যায়, নারীরা কৃষিতে শ্রম দিলেও ভূমির মালিকানা ঠিকই পুরুষদের হাতে থেকে যাচ্ছে।

নারীদের ক্ষেত্রে শুধু সমঅধিকার নিশ্চিত করাই যথেষ্ট নয়। তারা যে বৈষম্যের শিকার হচ্ছে তার অবসান ঘটাতে বিশেষ বিশেষ উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করতে হবে। নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে সমন্বিত প্রকল্প গ্রহণ ও যথাসময়ে বাস্তবায়ন করতে হবে। সবক্ষেত্রে নারীদের অধিকার ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। কৃষিতে নারীর অধিকার ও স্বীকৃতি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে পারিবারিক আইন সংশোধন করে ভূমিতে নারী-পুরুষের বৈষম্য দূর করা জরুরি। নারীর অধিকার ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা না গেলে কোন উন্নয়ন টেকসই হবে না। টেকসই উন্নয়নের স্বার্থে কৃষিক্ষেত্রে নারীর অবদানের স্বীকৃতি দিতে হবে। ভূমিতে নারীর অধিকার নিশ্চিত করতে হবে যে কোনো মূল্যে।