• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

মাগুরায় শিক্ষকের ওপর আওয়ামী লীগ নেতার হামলা

অভিযুক্ত নেতার বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নিন

| ঢাকা , শনিবার, ০৭ মার্চ ২০২০

ব্যবস্থাপনা কমিটির বিরোধের জের ধরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতার পিটুনি খেয়ে দুদিন ধরে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন মাগুরার শ্রীপুরের বাখেরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জিয়াউর রহমান জুয়েল। পেটানোর পাশাপাশি ওই শিক্ষকের দাড়ির কিছু অংশও ছিড়ে ফেলেন আওয়ামী লীগ নেতা। অভিযুক্ত মুসফিকুর রহমান মিল্টন সব্দালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। মানসিক যন্ত্রণায় ক্ষতবিক্ষত এই শিক্ষক আর কোনদিন শিক্ষকতা করবেন না বলে জানিয়েছেন। এ নিয়ে গত বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

এর আগে গত বছর রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষকে ছাত্রলীগের কিছু সদস্য পুকুরের পানিতে ছুড়ে ফেলে দিয়েছিল। এতসব অন্যায়-অনিয়ম করার পরও তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। আওয়ামী লীগ নেতা বা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এমন নজিরবিহীন অপরাধ ঘটিয়েই চলেছে। গত বছরের জুলাইয়ে চট্টগ্রামের ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির ইংরেজি বিভাগের এক প্রবীণ শিক্ষকের শরীরে কেরোসিন ঢেলে দিয়েছিল ছাত্রলীগেরই কিছু সদস্য। তাকে লিফটের ভেতর থেকে টেনেহিঁচড়ে বাইরে এনে মাটিতে ফেলে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে দিতে চেয়েছিল তারা। এর আগে থেকে তারা তার ওপর শারীরিক মানসিক নির্যাতন চালিয়ে আসছিল।

এমন অপমান ও লাঞ্ছনার ঘটনা সারা দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ক্ষমতাসীন দলের ক্যাডাররা ঘটাচ্ছে। অন্যায় দাবি মেনে না দিলেই শিক্ষকদের লাঞ্ছনা জুটছে। দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এমন বর্বরোচিত কর্মকা- যেন সাধারণ ঘটনা হয়ে গেছে। এর ফলে অনেক শিক্ষক ছাত্রলীগের অন্যায় দাবি মেনে নিয়ে কোনমতে টিকে থাকতে বাধ্য হচ্ছেন অথবা জিয়াউর রহমান জুয়েলের মতো শিক্ষকতা ছেড়ে দিতে বাধ্য হচ্ছেন। শিক্ষকদের ওপর এ রকম লাঞ্ছনা চলতে থাকলে এই পেশায় আগামীতে আর কেউ আসতে চাইবে কি?

বর্তমানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে শিক্ষকরা জিম্মি হয়ে গেছেন। এ অবস্থার পরিবর্তন করতে হবে। সেজন্য দরকার অপরাধীদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে আইনি পন্থায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ। আমরা চাই শিক্ষক জিয়াউর রহমান জুয়েলের ওপর হামলার দায়ে অভিযুক্ত আওয়ামী লীগ নেতা মুসফিকুর রহমান মিল্টনের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক কঠোর আইনি ব্যবস্থা নেয়া হোক।