• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ জিলকদ ১৪৪১

‘বর্তমানে দেশে ৯৮ শতাংশের বেশি মানুষ সুপেয় পানির আওতায়’

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , মঙ্গলবার, ৩০ জুন ২০২০

বর্তমানে দেশে ৯৮ শতাংশের বেশি মানুষ সুপেয় পানির আওতায় এসেছে। এক দশক আগেও ৬০ শতাংশের কম ছিল। বৈশ্বিক করোনা মহামারীর মধ্যে ঢাকা ওয়াসাসহ অন্য পানি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান সারাদেশে ২৪ ঘণ্টা পানি সরবরাহ করছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। গতকাল এশিয়ান ডেভোলপমেন্ট ব্যাংক (এডিবি)’র হেড কোয়াটার ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলা অনুষ্ঠিত এক অনলাইন কর্মশালায় অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন। বৈশ্বিক মহামারী করোনা সংকটে ঢাকা ওয়াসা নির্বিঘ্নে পানি সরবরাহ করার সফলতার অভিজ্ঞতা শেয়ারের লক্ষ্যে এই কর্মশালার আয়োজন করে এডিবি। কর্মশালায় বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের ১৬০ জন (এডিবির পানি বিশেষজ্ঞসহ) প্রতিনিধি অংশ নেন। ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তাকসিম এ খান কর্মশালায় ঢাকা ওয়াসার সংকটময় পরিস্থিতিতে পানি সরবরাহের অভিজ্ঞতা শেয়ার করে মূল প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন।

বাংলাদেশ থেকে অনলাইনে অংশ নিয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, দেশে করোনাভাইরাস রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকেই সবাইকে ঘন ঘন হাত ধোয়ার পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। এতে করে বাসা বাড়ি, শিল্প কলকারখানাসহ বিভিন্ন জায়গায় পানির ব্যবহার কয়েকগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। পানির ব্যবহার বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রয়োজনীয় পানি সরবরাহ করা ঢাকা ওয়াসাসহ পানি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে একটি বড় চ্যালেঞ্জ হওয়া সত্ত্বেও যথেষ্ট দক্ষতার সঙ্গে মোকাবিলা করছে। এছাড়া করোনাভাইরাসের বিস্তাররোধে ঢাকা শহরের পাশাপাশি দেশের বিভাগীয় এবং জেলা শহরের বিভিন্ন রাস্তায় জীবাণুনাশক স্প্রে করা হচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রী।

মো. তাজুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে দেশে ৯৮ শতাংশের বেশি মানুষ সুপেয় পানির আওতায় এসেছে। যা এক দশক আগেও ৬০ শতাংশের কম ছিল। আর এটা সম্ভব হয়েছে শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায়। বাংলাদেশে করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর থেকেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে ভাইরাসের বিস্তার রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে উল্লেখ করে মো. তাজুল ইসলাম বলেন- স্বাস্থ্য, অর্থনীতি, কৃষি এবং সামাজিক দিক বিবেচনাসহ সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের কথা চিন্তা করে শেখ হাসিনা বিভিন্ন প্রণোদনা ঘোষণা করেছেন।

এশিয়ান ডেভোলপমেন্ট ব্যাংক-এডিবি বাংলাদেশে পরিবেশ, জলবায়ু পরিবর্তন, পানি সরবরাহ, স্যানিটেশনসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে যে সহযোগিতা চলমান আছে তা অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে উৎপাদনশীল খাত, অবকাঠামো উন্নয়ন এবং গ্রামীণ উন্নয়নসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করতে এডিবি’র প্রতি আহ্বান জানান স্থানীয় সরকার মন্ত্রী।

কর্মশালায় অংশ নিয়ে এডিবি’র দক্ষিণ এশিয়ার পানিবিষয়ক ও আরবান উন্নায়ন (এসএইউডব্লিউ)’র পরিচালক নারিও সাইতো বলেন, করোনা প্রাদুর্ভাবের সংকটে ঢাকা ওয়াসার পানি সরবরাহের অভিজ্ঞতা দক্ষিণ এশিয়ায় রোল মডেল।