• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১

সেমিনারে তথ্য

২০৪১ সালে দেশের বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা হবে ৭৯ হাজার মেগাওয়াট

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০১৯

২০৪১ সালের মধ্যে দেশের বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা ৭৯ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীত হবে। আর ২০২১ সালের মধ্যে ২৪ হাজার মেগাওয়াট ও ২০৩০ সালের মধ্যে ৪০ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীত হবে। গত বুধবার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি)-এর তড়িৎ কৌশল বিভাগের উদ্যোগে ‘স্মার্ট গ্রিড : দ্য পাথওয়ে টু ডিজিটাল পাওয়ার সিস্টেম ফর বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনারে এসব তথ্য জানানো হয়।

সেমিনারে আরও জানানো হয়, স্বাধীনতার পর বাংলাদেশের বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা ছিল মাত্র ২৩০ মেগাওয়াট। এখন তা ২১ হাজার ১৬৯ মেগাওয়াট। ১০ বছর আগেও এই ক্ষমতা ছিল মাত্র তিন হাজার ৫০০ মেগাওয়াট। ৯৩ শতাংশ জনগণ এখন বিদ্যুতের আওতাধীন। মাথাপিছু বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রতি ঘণ্টায় এখন ৪৬৪ কিলোওয়াট, যা বিগত ৯ বছরে দ্বিগুণ হয়েছে।

সেমিনারে আইইবি’র প্রেসিডেন্ট ও আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুর প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, দেশে আজ বিদ্যুতের এই উন্নতির পেছনে অন্যতম অবদান আমাদের দেশীয় প্রকৌশলীদের। দেশীয় প্রকৌশলীরা সিস্টেম লস এক অঙ্কে নামিয়ে এনেছে। তারাই বাংলাদেশকে আগামী দিনের পথ দেখাবেন।

সেমিনারে তড়িৎ কৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মো. রমিজ উদ্দিন সরকারের সভাপতিত্বে এতে স্বাগত বক্তব্য দেন আইইবি’র সম্মানী সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী খন্দকার মনজুর মোর্শেদ। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী খালেদ মাহমুদ, পিজিসিবি’র তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী জামিল আহমেদ, তড়িৎ কৌশল বিভাগের সম্পাদক প্রকৌশলী মো. আবদুর রাজ্জাক, ভাইস চেয়ারম্যান প্রকৌশলী প্রতীক কুমার ঘোষ প্রমুখ।