• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মহররম ১৪৪১

সুধারামে তরুণীকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা

সুবর্ণচরে চাচাকে পিটিয়ে হত্যা, বেগমগঞ্জে তরুণীর লাশ উদ্ধার

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, নোয়াখালী

| ঢাকা , শুক্রবার, ১১ জানুয়ারী ২০১৯

সুধারাম থানার ধর্মপুর ইউনিয়নের চরশুল্লকিয়ার বাড়ির পাশের বাগানে এক যুবতীকে (১৯) এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। যুবতীর পিতা জহুরুল হক জানান, বুধবার সন্ধ্যায় সে স্থানীয় বাজারে যায় এবং তার মা পার্শ্ববর্তী বাসায় বেড়াতে গেলে এ সুযোগে সন্ত্রাসীরা তার মেয়েকে ঘর থেকে বের করে বাড়ির পুকুরের পাশে জঙ্গলে নিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও জবাই করে বিবস্ত্র অবস্থায় ফেলে যায়। সে বাড়ি এসে এদিক-সেদিক খুঁজে মেয়েকে না পেয়ে প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় আশপাশে খুঁজতে গিয়ে নিহত মেয়েকে দেখতে পেয়ে সুধারাম থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তার লাশ উদ্ধার করে গতকাল সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়নাতদন্তের পর মেয়ের লাশ তাকে ফেরত দেয়। গতকাল বিকেলে সে মেয়ের দাফন সম্পন্ন করে। নোয়াখালী সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ নাছের জনি জানায়, এ হত্যাকা- একাধিক প্রেমজনিত ঘটনার জিঘাংসা চরিতার্থ হতে পারে।

তিনি বলেন, সুরতহাল রিপোর্টে দেখা গেছে এ যুবতীকে শুধু জবাই করা হয়নি ধারালো ছুরি দিয়ে একাধিক ছুরিকাঘাত করে বিভিন্ন অঙ্গ এবং পায়ের রগও কেটে ফেলা হয়েছে। এটি একটি নির্মম হত্যাকা- বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, নিহত যুবতী একটি ফোনে দীর্ঘক্ষণ কোন ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলেছেন বা ঝগড়া-ঝাটি করেছেন। এই মোবাইলের চার্জ শেষ হয়ে গেলে অন্য মোবাইল নিয়ে বাগানে গিয়ে কথা বলে। এর পরপরই রাত ৮টা থেকে সাড়ে ৮টার মধ্যে সন্ত্রাসীরা তাকে কুপিয়ে হত্যা করে। হত্যাকারীরা তার পূর্ব পরিচিত বলে ধারণা করা হচ্ছে। নিহতের লাশের কাছে একটি শপিং ব্যাগে পানির বোতল, একটি লুঙ্গি পাওয়া গেছে। তবে তার ব্যবহার করা পরবর্তী ফোনটি হত্যাকারীরা নিয়ে গেছে।

তিনি জানান, পুলিশ সুপার ইলিয়াছ শরিফ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তদন্তের ব্যাপারে দিকনির্দেশনা নিয়েছেন। নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল এ নিহতের ময়নাতদন্তকারী টিমের এক ডাক্তার (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) জানান, একাধিক ব্যক্তি ধর্ষণ করার পর মেয়েটিকে জবাই করে, শরীরের বিভিন্ন স্থানে কোপানোর ফলে ও পায়ের রগ কাটার কারণে অধিক রক্তক্ষরণে যুবতীর মৃত্যু হয়েছে। সুধারাম থানার ওসি (তদন্ত) শাহেদ হোসেন জানান, নিহতের পিতা জহিরুল হক বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামি উল্লেখ করে সুধারাম থানায় একটি খুনের মামলা দায়ের করেছে। মামলা নং-১২, তারিখ-১০/০১/২০১৯ইং। একই দিন সুবর্ণচরের চর পানা উল্যাহ ভাতিজা আরিফ জায়গা জমি নিয়ে ঝগড়ার এক পর্যায়ে চাচা দুলাল ব্যাপারিকে (৫৫) পিটিয়ে হত্যা করে। আরেক ঘটনায় বেগমগঞ্জ পুলিশ বেগমগঞ্জ থানার গোপালপুর ইউনিয়নের মির্জানগর আফজাল প-িতের বাড়ির ঘরের ভিতর থেকে নার্গিস (১৮) নামে এক যুবতীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। লাশগুলো ময়নাতদন্তের পর আত্মীয়স্বজনদের বুঝিয়ে দিয়েছে পুলিশ। দুলাল ব্যাপারি হত্যার ব্যাপারে চরজব্বর থানায় মামলা হলেও নার্গিসের ব্যাপারে বেগমগঞ্জ থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।