• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৫, ১৭ শাবান ১৪৪০

ময়মনসিংহ মেডিকেল

সহপাঠীদের সঙ্গে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী

সংবাদ :
  • জেলা বার্তা পরিবেশক, ময়মনসিংহ

| ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০১৯

image

চ্যানেল আইয়ের বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে স্পিকার ও সস্ত্রীক ভুটানের প্রধানমন্ত্রী -সংবাদ

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং বলেন, ভালো ডাক্তার হতে হলে আগে ভালো মানুষ হতে হবে। মানুষের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করে তাদের মন জয় করতে হবে। মানবিক হতে হবে। তিনি বলেন, চিকিৎসকদের মানুষের জন্য কাজ করার অনেক সুযোগ আছে। ডাক্তারদের শুধু চিকিৎসাসেবা নয়, সামাজিক-রাজনৈতিক অনেক ক্ষেত্রেই অবদান রাখার সুযোগ আছে। তার স্মৃতিবিজড়িত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাস পরিদর্শন করতে এসে গত রোববার পহেলা বৈশাখে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ মিলনায়তনে এক মতবিনিময় সভায় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি এসব কথা বলেন। এছাড়া ওই কলেজে শিক্ষার্থী থাকাকালীন ক্যাম্পাসের কিছু স্মৃতি তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন তিনি।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব জিএম সালেহ উদ্দিন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

পরে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ক্যাম্পাসে তার স্মৃতিবিজড়িত বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করেন এবং তার ব্যাচম্যাটদের সঙ্গে একান্তে কিছু সময় কাটান। সহপাঠীদের নিয়ে ক্যাম্পাসের উল্লেখযোগ্য স্থানগুলো ঘুরে দেখেন। এছাড়া হাসপাতালে একটি ওয়ার্ডও পরিদর্শন করেন। এ সময় তার স্ত্রীও সঙ্গে ছিলেন। ডা. লোটে শেরিং বিদেশি কোটায় ১৯৯০-৯১ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস পড়তে প্রথম বর্ষে ভর্তি হন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে। প্রায় ৭ বছর চিকিৎসা শিক্ষায় লেখাপড়া শেষ করে নিজ দেশে ফিরে গিয়ে রাজনীতিতে যোগ দেন। দীর্ঘদিন রাজনীতিতে থেকে প্রধানমন্ত্রী হয়ে যান তিনি। প্রধানমন্ত্রী হয়ে প্রথমবারের মতো সহপাঠী, চিকিৎসক ও প্রিয় কলেজ ক্যাম্পাস দেখতে রোববার পহেলা বৈশাখে ময়মনসিংহে আসেন। সহপাঠী ও একটি দেশের প্রধানমন্ত্রীর আগমনে উচ্ছ্বসিত সহপাঠী চিকিৎসকরা। তার আগমনে আনন্দিত কলেজের দেশি-বিদেশি ও নবীন শিক্ষার্থীরাও।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের ২৮ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের আগামী পুনর্মিলনী ভুটানে

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও ভুটানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং রোববার পহেলা বৈশাখে তার পুরনো ক্যাম্পাস পরিদর্শনে এসে সহপাঠীদের সঙ্গে আড্ডায় মেতে ওঠেন। সহপাঠীরা বলছিলেন, কিছুক্ষণের জন্য ভুলে যান তিনি একটি দেশের প্রধানমন্ত্রী। এই আড্ডায় তিনি ঘোষণা করেন, আগামী বছর ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের এম-২৮ ব্যাচের পুর্নমিলনী হবে ভুটানে।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে অনুষ্ঠিত নববর্ষের অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানটির প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও বর্তমানে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং ওই প্রস্তাব দিয়েছেন। এ সময় তার সহপাঠীরা সানন্দে সহমত প্রকাশ করেন। ১৪ এপ্রিল অনুষ্ঠান শেষে এম-২৮ ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষার্থী অধ্যাপক ডা. রুহুল কুদ্দস রূপম এসব তথ্য জানান। তিনি জানান, মেডিকেল কলেজের অডিটোরিয়ামে সংবর্ধনা শেষে দুপুর ১২টার দিকে ডা. লোটে শেরিং সহর্ধমিণী ডা. উগেন ডেমাকে সঙ্গে নিয়ে কলেজের ২ নম্বর গ্যালারিতে আসেন। সহপাঠীরা তাকে কাছে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর আরেক সহপাঠী ডা. রোকশানা জানান, ডা. লোটে গ্যালারিতে আসার পর উপস্থিত অধিকাংশ সহপাঠীকে নাম ধরে ডেকে একান্তে কথা বলেন।

এম-২৮ ব্যাচের ডা. শফিকুল বারী জানান, প্রায় ৩০ মিনিট আমাদের সঙ্গে তিনি আড্ডা দিয়েছেন। এ সময় সহপাঠী বন্ধুরা তার ও তার স্ত্রীর সঙ্গে সেলফি তুলতে মেতে ওঠেন। বাংলাদেশ সফরে এসে নববর্ষ উদযাপনে নিজের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডা. লোটে শেরিং। ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন তিনি।