• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬, ১৯ রবিউল আওয়াল ১৪৪১

মাদক নির্মূলে সব প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০১৯

মাদক নিয়ন্ত্রণে সরকার সব ধরনের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। গতকাল দুপুরে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের (ডিএনসি) ডিজিটাল ডিভাইস ‘কিয়স্ক’ এর মাধ্যমে দেশব্যাপী মাদকবিরোধী প্রচার কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মাদক পাচার বন্ধে সীমান্ত আইন কঠোর করা হচ্ছে। মাদকের জায়গা থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতেই হবে। তাই আমরা সর্ব প্রকার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনকে আমরা যথোপযুক্ত করেছি। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মাদকের বিরুদ্ধে ভূমিকা রাখছে।

দেশে ৬৫ শতাংশ যুবক এবং তরুণ কর্মক্ষম। তাদের ওপর আমাদের ভবিষ্যৎ নির্ভর করছে। তারা যাতে হারিয়ে না যায়, সেজন্যই আমরা সর্ব প্রকার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। কিয়স্ক এর মাধ্যমে দেশব্যাপী মাদকের কুফল সম্পর্কে জানিয়ে দিচ্ছি। মাদক নিয়ন্ত্রণে আমরা প্রচেষ্টা চালিয়ে যাব। মাদকের ডিমান্ড বন্ধ করব। আর যারা মাদকাসক্ত হয়েছে, তাদের চিকিৎসাও চালিয়ে যাব।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ডিজিটাল ডিভাইস ‘কিয়স্ক’ যুক্ত এলইডি ডিসপ্লে দেশের বিভিন্ন স্থানে স্থাপন করা হবে। এতে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের নির্মিত মাদকবিরোধী বিভিন্ন শর্টফিল্ম, টিভিস, নাটক-নাটিকা, প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হবে। এছাড়া মাদক সংক্রান্ত সব ধরনের হালনাগাদ তথ্য এতে দেয়া হবে। ফলে এর মাধ্যমে সাধারণ মানুষ মাদকের ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে জানতে পারবে এবং সচেতনতা বাড়বে।

মায়ানমার সরকার প্রধানকেও আমরা বলেছি তাদের দেশ থেকে মাদক পাচার বন্ধ করার জন্য। তারা বলেছে, আমাদের ডিমান্ড কমিয়ে আনতে। আমরা মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণার ক্ষেত্রে মাদকের ডিমান্ড শূন্যে নিয়ে আসতে কাজ করছি। কিয়স্ক নামক এই ডিজিটাল যন্ত্রের মাধ্যমে ২৪ ঘণ্টা মাদকের ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে আপডেড জানতে পারবে। ডিএনসির মহাপরিচালক (ডিজি) মো. জামাল উদ্দীন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব মো. শহিদুজ্জামানসহ ডিএনসির বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।