• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১৮ জিলকদ ১৪৪১

বিদ্যুৎ জ্বালানি খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী সৌদি

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , মঙ্গলবার, ৩০ এপ্রিল ২০১৯

বাংলাদেশের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে সৌদি আরব। গতকাল সচিবালয়ে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বিদ্যুৎ ও তেল-গ্যাস খাতে দেশটি বড় দুই কোম্পানি ‘আকওয়া পাওয়ার’ এবং ‘ সৗদি আরামকো’ এর ৪ সদস্যের প্রতিনিধিদল এ আগ্রহের কথা জানায়। প্রতিনিধি দলে ছিলেন- আরামকো’র ভাইস প্রেসিডেন্ট আবদুল সালাম আল হামজি ও আরমাকো’র বিজনেস ডেভলপমেন্ট ম্যানেজার জুলিও হ্যাসেলমেয়ার মসেস, আকওয়া পাওয়ারের পরিচালক আইয়াদ ও জেনারেল ম্যানেজার মোহাম্মদ আহমেয়া এম খাতির। এসময় সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মশি ও বিদ্যুৎ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. শফিকুল্লাহ উপস্থিত ছিলেন।

‘আকওয়া পাওয়ার’ এবং ‘সৌদি আরামকো’ বিদ্যুৎ-জ্বালানি খাতে বাংলাদেশে গৃহীত প্রকল্পসমূহের উন্নয়নে যৌথভাবে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করে। বিশেষক করে ‘আকওয়া পাওয়ার’ বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উৎপাদন, এলএনজি/গ্যাস সরবরাহ, সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদন ও এ খাতের উন্নয়নে কাজ করতে চায়।

প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু সাক্ষাৎকালে প্রতিনিধি দলের সদস্যদের বলেন, সৌদি আরবের বিনিয়োগকে সার্বিকভাবে স্বাগত জানানো হবে। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে বিনিয়াগের প্রচুরর সম্ভাবনা রয়েছে। বিদ্যমান প্রকল্পসমূহেও সৌদি কোম্পানিগুলো বিনিয়োগ করতে পারে। প্রতিমন্ত্রী কোম্পানিগুলোর পক্ষ থেকে সুনির্দিষ্ট প্রকল্প নিয়ে প্রস্তাব দেয়ার অনুরোধ করেন। উল্লেখ্য, ফেনী জেলার সোনাগাজীতে ইলেকট্রিসিটি জেনারেশন কোম্পানি অব বাংলাদেশ (ইজিসিবি) লিমিটেড এবং ‘আল ফেনার কোম্পানি, সৌদি আরব’ এর মধ্যে জয়েন্ট ভেঞ্চারের মাধ্যমে ১০০ মেগাওয়াট সৌর (ফটোভোল্টাইক) বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ নিয়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর চুড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। গত ২১ জানুয়ারী সৌদি আরবের জাতীয় পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস ভিত্তিক কোম্পানি ‘সৌদি আরমকো’ বাংলাদেশ সফর করে প্রাথমিকভাবে বাংলাদেশে তেল শোধনাগার স্থাপনে আগ্রহ প্রকাশ করেন।