• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০, ১৬ চৈত্র ১৪২৬, ৩০ রজব সানি ১৪৪১

বিজ্ঞাপনে বিদেশি শিল্পী নিলে উচ্চ কর -তথ্যমন্ত্রী

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯

তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিদেশি শিল্পী দিয়ে দেশীয় বিজ্ঞাপন নির্মাণ করা হলে উচ্চ কর দিতে হবে এবং এজন্য একটি নীতিমালা তৈরি করা হচ্ছে। গতকাল সচিবালয়ে ‘দেশে টেলিভিশনের ক্যাবল নেটওয়ার্ককে ডিজিটাল পদ্ধতির আওতায় আনার লক্ষ্যে’ আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তথ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশে যারা বিজ্ঞাপন তৈরি করেন এবং যারা মডেল তাদের অনেকেই বিশ্বমানের। তিনি বলেন, আামাদের দেশের ছেলেমেয়েদের দিয়ে বিজ্ঞাপন তৈরি না করে বিদেশের দ্বিতীয় গ্রেডের শিল্পী দিয়ে বিজ্ঞাপন বানানো হচ্ছে, যেটি সমীচীন নয়। তথ্যমন্ত্রী বলেন, অবশ্যই মুক্তবাজার অর্থনীতিতে যে কেউ যে কাউকে দিয়ে, হলিউডের শিল্পী দিয়েও (বিজ্ঞাপন) বানাতে পারেন, অসুবিধা নেই। সেটার জন্য অবশ্যই অনেক বেশি ট্যাক্স দিতে হবে। এ ব্যাপারে ইতোমধ্যে সংশ্লিদের চিঠি দেয়া হয়েছে এবং সবার সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

অবৈধ ডিটিএইচ পরিচালনায় ২ বছরের জেল

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এ সময় বলেন, সরকার দুটি কোম্পানিকে ডিটিএইচ (ডাইরেক্ট টু হোম-ক্যাবলবিহীন স্যাটেলাইট চ্যানেল সংযোগ) লাইসেন্স দিয়েছে। তারা এখনও পুরোপুরি সম্প্রচারে যায়নি। অথচ বাংলাদেশে কয়েক লাখ অবৈধ ডিটিএইচ সংযোগ আছে। অনেক বিত্তবানদের ঘরেও ডিটিএইচ আছে। এগুলো কেনা হয় কলকাতা বা ভারতের বাজার থেকে, এভাবে হুন্ডি হয়ে সাত-আটশ’ কোটি টাকা পাচার হয়ে যায়। এটি কোনভাবেই সমীচীন নয়, পরিপূর্ণভাবে অবৈধ। তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা ইতোমধ্যে নির্দেশনা জারি করেছি, আগামী ১৫ ডিসেম্বরের মধ্যে এসব অবৈধ ডিটিএইচ সংযোগ সরিয়ে নিতে হবে। অন্যথায় শাস্তি সর্বোচ্চ দুই বছরের সশ্রম কারাদ- বা ৫০ হাজার থেকে এক লাখ টাকা জরিমানা। এছাড়া দ্বিতীয়বার একই অপরাধ করলে তিন বছরের জেল বা এক থেকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হবে।

হালে পানি পাবে না ঐক্যফ্রন্ট

বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে ২২ অক্টোবর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, যে ইস্যুর সমাধান হয়ে গেছে, তা নিয়ে মাঠে নেমে হালে পানি পাবে না। তিনি বলেন, আবরার ফাহাদের হত্যার পর সরকার ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ যেসব পদক্ষেপ নিয়েছে এগুলোতে সন্তুষ্ট হয়ে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছে। ঐক্যফ্রন্ট এ হত্যাকা- নিয়ে পানি ঘোলা করার চেষ্টা করছে ।