• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ২৭ আষাঢ় ১৪২৭, ১৯ জিলকদ ১৪৪১

মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক

বাংলাদেশের প্রচলিত আইন মেনে চলার প্রতিশ্রুতি ফেসবুকের

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সংস্কৃতি, মূল্যবোধ এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনসহ বাংলাদেশের প্রচলিত আইন মেনে চলা এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চাহিদা অনুুযায়ী প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদানে পূর্ণ সম্মতি দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। এ ছাড়াও বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠানটির স্থানীয় প্রতিনিধি নিয়োগ, রিসেলার নিয়োগ, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে কর প্রদানে প্রতিনিধি নিয়োগ এবং বাংলা ভাষার সঠিক অনুবাদ ও প্রয়োগের সব ধরনের সহযোগিতা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

গতকাল বিটিআরসি মিলনায়তনে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সঙ্গে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে ফেসবুকের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদল এসব সম্মতি প্রদান করে। বৈঠকে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস, বিটিআরসি চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক, বিটিসিএল মহাপরিচালক ইকবাল মাহমুদ, টেলিকম অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. মহসিনুল আলম, আইসিটি বিভাগের সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক পরিচালক তারেক এম বরকত উল্লাহ এবং সাইবার থ্রেট ডিটেকশন প্রকল্পের পরিচালক মো. রফিকুল মতিনসহ ডিজিএফআই, এনএসআই, র‌্যাব, এনবিআর, এনটিএমসি এবং এসবিসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে ফেসবুকের ৮ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন ফুসবুকের হেড অব সেফটি বিক্রম সেন। প্রতিনিধিদলের অপর সদস্যরা হলেন- ফেসবুক পাবলিক পলিসি বিষয়ক পরিচালক অশ্বনি রানা, শিবনাথ থাকরাল, পাবলিক পলিসি ম্যানেজার বরুণ রেড্ডি, সুমন্ত বিশ্বাস, প্রডাক্ট লেভেল ট্রান্সলেটর টবি ফারনাল, পাবলিক পলিসি ম্যানেজার রিসাব দারা, স্টেটেজি ম্যানেজার ম্যাট স্যানসেন এবং ফেসবুক মোবাইল পার্টনার বিভাগের ইরম ইকবাল।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশ, আমাদের সমাজ আমাদের নাগরিকদের ফেসবুকের নিরাপদ ব্যবহারের সুযোগ দিতে হবে। বাংলাদেশে আইন আছে, সেই আইন মোতাবেক ফেসবুককে কনটেন্ট এবং অন্য সব বিষয়গুলো বাস্তবায়ন করতে হবে। ফেসবুক বিষয়গুলো গুরুত্বের সঙ্গে দেখার বিষয়ে মন্ত্রীকে আশ্বাস প্রদান করে।

কনটেন্ট বিষয়ে বিদ্যমান যে কোনো সমস্যা দ্রুত সমাধানের জন্য বাংলাদেশে অফিস খোলার বিষয়ে মন্ত্রী গুরুত্বারোপ করে বলেন, রেসপন্স টাইমের বিষয়ে ফেসবুক যে দীর্ঘসূত্রিতা করে, সেটিকে ইমিডিয়েট রেসপন্স টাইমে আনতে হবে। ফেসবুককে সঠিকভাবে বাংলা ভাষায় অনুবাদ এবং প্রয়োগ করতে হবে। আর ফেসবুক যদি এই সক্ষমতা অর্জনের ক্ষেত্রে সহযোগিতা চায়, সে লক্ষ্যে সম্ভাব্য সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

প্রায় ৪ ঘণ্টাব্যাপী এই বৈঠকে নানা বিষয়ে আলোচনা হয়। বৈঠক শেষে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রতিনিধিদল, বাংলাদেশের চাহিদার সঙ্গে একমত পোষণ করেছে। তারা আইন মেনে চলা ও সব ধরনের সহযোগিতা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।