• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮ ১ রমজান ১৪৪২

তৃতীয় স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ ২০২৩ সালে

মোস্তাফা জব্বার

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , শুক্রবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, দেশের দ্বিতীয় স্যাটেলাইট ২০২৩ সালের মধ্যে উৎক্ষেপণের লক্ষ্যে কাজ শুরু হয়েছে। গতকাল একাদশ জাতীয় সংসদের ৬ষ্ঠ অধিবেশনের ২০তম কার্যদিবসে প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকারি দলের সংসদ সদস্য আনোয়ার হোসেন খানের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে বিকেলে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশনের শুরুতে প্রশ্নোত্তর পর্ব টেবিলে উপস্থাপিত হয়। বাংলাদেশ স্যাটেলাইট ক্লাবের ৫৭তম সদস্য মোস্তাফা জব্বার বলেন, বর্তমান সরকারের অন্যতম অর্জন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর সফল উৎক্ষেপণ। এর মাধ্যমে বাংলাদেশ পরিণত হয়েছে স্যাটেলাইট ক্লাবের ৫৭তম গর্বিত সদস্যে। বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারে দেশের দ্বিতীয় স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের ঘোষণা রয়েছে। তিনি বলেন, দ্বিতীয় স্যাটেলাইট কি প্রকারের হবে এবং এর দ্বারা কি কি সেবা প্রদান করা হবে তা নির্ধারণের জন্য স্টেক হোল্ডারদের সঙ্গে আলোচনা ও আন্তর্জাতিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

মোবাইলে বিরক্তিকর মেসেজ বন্ধে পদক্ষেপ

সরকারি দলের সংসদ সদস্য অসীম কুমার উকিলের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, দেশের মোবাইল গ্রাহকের কাছে প্রলুব্ধকরণ ও প্রতারণামূলক অফার ও বিরক্তিকর মেসেজ বন্ধে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। পদক্ষেপগুলো হচ্ছে মোবাইল ফোন গ্রাহক তার সংশ্লিষ্ট অপারেটরের জন্য নির্ধারিত শর্ট কোড ডায়াল করে ‘ডু নট ডিস্টার্ব’ ফিচারটি চালু করে নিলে গ্রাহকের কাছে আর কোন প্রমোশনাল মেসেজ আসবে না। তবে সরকারি তথ্য এর অন্তর্ভুক্ত নয়। অপারেটরভিত্তিক ‘ডু নট ডিস্টার্ব’ শর্ট কোডগুলো হচ্ছে- গ্রামীণফোন- *১২১*১১০১#, রবি/এয়ারটেল- *০৭# এবং বাংলালিংক- *১২১*৮# । এরপর অপশন-৬।

জরুরি এসএমএস ব্যতীত রাত ১০টার পর থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত যেন কোন প্রমোশনাল মেসেজ গ্রাহকদের না পাঠায় সেজন্য মোবাইলফোন অপারেটরদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তাছাড়া বায়োমেট্রিক সিম নিবন্ধন পদ্ধতি চালুর ফলে ইতোমধ্যে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রতারণামূলক কার্যক্রম বহুলাংশে হ্রাস পেয়েছে। তথাপি এ ধরনের কোন কর্মকা- সম্পর্কে কর্তৃপক্ষ অবহিত হলে সেই মোবাইল নম্বর বন্ধ করাসহ প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়ে থাকে।