• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১

ঢাবিতে ফজলুর রহমান খান ফারুকের ‘আত্মজৈবনিক’ গ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, ঢাবি

| ঢাকা , শনিবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৯

মুক্তিযোদ্ধা ও সাহিত্যিক ফজলুর রহমান খান ফারুকের ‘আত্মজৈবনিক’ গ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) রমেশচন্দ্র (আরসি) মজুমদার মিলনায়তনে উৎসবটি হয়। এছাড়া ‘লেখা প্রকাশ’-এর ১২টি সাহিত্য পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মীজানুর রহমান। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর সভাপতি ড. অধ্যাপক শফিউদ্দিন আহমদ, বাংলাদেশ নজরুল সেনার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক অ্যাডভোকেট ফজলুল হক খান ফরিদ (সাথী ভাই), মওলানা ভাসানী ফাউন্ডেশন সভাপতি খন্দকার নাজিমুদ্দিন প্রমুখ। এর উদ্বোধন করেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রধান তদন্ত কর্মকর্তা মুহ. আবদুল হান্নান খান।

ড. মীজানুর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী হলো ইতিহাসের কাঁচামাল। ১৯৭১ সালে পুরো জাতি ঐক্যবদ্ধ হয়েছিলÑ এ কথাটি মোটেই সঠিক নয়। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট একটি সাধারণ অভ্যুত্থান ছিল না। ১৯৭১ সালে যে বাংলাদেশ অর্জন হয়েছিল, এর পরিবর্তে সেদিন আবার পূর্ব পাকিস্তান সৃষ্টি হয়।

খন্দকার নাজিমুদ্দিন বলেন, এই (আত্মজৈবনিক) বই পড়লে বোঝা যাবে তৎকালীন রাজনীতির বাস্তব চিত্র। এখন তো সব হাইব্রিড নেতা হয়ে গেছেন। সারাজীবন চাকরি করে টাকা-পয়সার মালিক হয়ে তারপর রাজনীতিতে আসেন। আগে রাজনীতি এত সহজ ছিল না। সাধারণ মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে বোঝাতে হতো। মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সেনানি ফজলুর রহমান খানরা এর উদাহরণ।

আলোচনা পর্ব শেষে ‘লেখা প্রকাশ’-এর সাহিত্য পুরস্কার প্রদান করা হয়। পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন কবিতায় ফকির আশরাফ ও একতেদার সিদ্দিকী, উপন্যাসে শাহাদাত হোসেন টিপু, গল্পে আশরাফুল ইসলাম, ছড়ায় শেখ সালাউদ্দিন, কিশোর সাহিত্যে শাহানা আফরোজ, প্রবন্ধে ড. মো. জমির হোসেন, গবেষণা প্রবন্ধে অ্যাডভোকেট আল রুহী ও ম. শেখ আবদুস সালাম, জীবনী গ্রন্থে ফজলুর রহমান খান ফারুক, সম্পাদনা গ্রন্থে সঞ্জিত কুমার রায়, কলামে দেবাশিষ দেব, গীতিকবিতায় শহীদুল্লাহ ফরায়েজী, অনুবাদে বিদ্যুৎ কোশনবীশ, প্রচ্ছদে সামিয়া আহমেদ ও প্রকাশনায় মনন প্রকাশ।