• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮ ১ রমজান ১৪৪২

মৎস্য কর্মকর্তাকে প্রহার

জড়িতদের গ্রেফতারের দাবিতে কর্মবিরতি

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, রংপুর

| ঢাকা , শুক্রবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০

রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলা মৎস্য অফিসার খালেদ মোশারফকে পিটিয়ে আহত এবং অফিস ভাঙচুরের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার দায়ীদের গ্রেফতারের দাবিতে উপজেলা পরিষদের সব কার্যালয়ের কর্মকর্তা কর্মচারীরা কর্মবিরতি পালন করেছে। ফলে মিঠাপুকুর উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সব উপজেলা পর্যায়ের অফিসের কর্মকা- পুরোপুরি বন্ধ ছিল। সেই সঙ্গে বৃহস্পতিবার পরিসংখ্যান বিভাগের অধীনে কর্মচারী নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তা শাহাদত হোসেন জানিয়েছেন, মিঠাপুকুর উপজেলা অফিসার্স ক্লাব উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা কার্যালয়ে হামলা ভাঙচুর এবং কর্মকর্তাকে পিটিয়ে আহত করার প্রতিবাদে মৌখিক পরীক্ষা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এদিকে ২৪ ঘণ্টা অতিবাহিত হওয়ার পরও মৎস্য লীগ নেতা সুধীর চন্দ্র জীবন ও তার সহযোগীদের পুলিশ গ্রেফতার না করায় উপজেলা পরিষদের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা চরম নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে রয়েছেন বলে স্ব স্ব দফতরের ঊর্ধ্বতন কর্তাদের জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে পুলিশের ভূমিকায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সরকারি কর্মকর্তারা।

এদিকে মৎস্য কর্মকর্তা কার্যালয়ে হামলার ঘটনায় গত বুধবার গভীর রাতে মিঠাপুকুর থানায় মৎস্য কর্মকর্তা খালেদ মোশারফ নিজে বাদী হয়ে মৎস্যজীবী লীগের উপজেলা সভাপতি সুধীর চন্দ্র জীবনসহ তার ৫ সহযোগীর নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেছেন। মিঠাপুকুর থানার ওসি জাফর আলী বিশ্বাস মামলা রেকর্ড করার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন, আসামিদের গ্রেফতার করার চেষ্টা চলছে, তাদের গ্রেফতার করা হলে গণমাধ্যমকে জানানো হবে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত বুধবার বেলা পৌনে এগারটার দিকে উপজেলা মৎস্যজীবী লীগ সভাপতি সুধীর চন্দ জীবনকে মৎস্যজীবীদের মাঝে মাছধরা জাল বিতরণ অনুষ্ঠানে অতিথি না করায় গত বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তার নেতৃত্বে ৬/৭ জন সন্ত্রাসী মিঠাপুকুর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয়ে প্রবেশ করে টেবিলের গ্লাস এবং আসবাবপত্রসহ মালামাল ভাঙচুর করে। মৎস্য কর্মকর্তা খালেদ মোশারফের ওপর হামলা চালিয়ে লাঠি দিয়ে তার মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায়। পরে অফিসের লোকজন মৎস্য কর্মকর্তাকে উদ্ধার করে মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।