• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ৬ রবিউল ‍আউয়াল ১৪৪২

চাকরির বয়সসীমা ৩৫ করার দাবিতে গণসমাবেশ

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , রোববার, ১৫ মার্চ ২০২০

চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫সহ ৪ দফা এবং কর্মসংস্থানের দাবিতে সমন্বিত গণসমাবেশ করেছে শিক্ষার্থীরা। গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সাধারণ ছাত্রকল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে এসব দাবির সঙ্গে একাত্বতা পোষণ করেন ছাত্র পরিষদ, বেকার মুক্তি আন্দোলন, জাতীয় যুব কল্যাণ ঐক্য পরিষদের নেতারা।

সমাবেশে সাধারণ ছাত্রকল্যাণ পরিষদের প্রধান সম্বয়ক মুজাম্মেল মিয়াজীর সভাপতিত্বে ও প্রধান সমন্বয়ক সুরাইয়া ইয়াসমিনের সঞ্চালনায় কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্রকল্যাণ পরিষদের কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক সজীব আহমেদ, জেনি আক্তার, রেশমা আক্তার, নাজিম উদ্দিন, বাংলাদেশ ছাত্র পরিষদের সভাপতি আল-আমিন রাজু, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম সেলিম, বেকার মুক্তি আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুর রাজ্জাক, তরিকুল ইসলাম, মো. রাসেল, জাতীয় যুব কল্যাণ পরিষদের কেন্দ্রীয় নেতা মাসুম বিল্লাহ, ইব্রাহিম খলিল প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তরা বলেন, কর্মসংস্থান এবং চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫সহ ৪ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে আমরা দীর্ঘদিন যাবত অহিংস আন্দোলন করে আসছি। এখন মুজিববর্ষ চলছে। বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন দেখেছিলেন এদেশকে সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলবেন এবং বলেছিলেন দাবি যদি ন্যায্য হয় এবং সংখ্যা যদি একজনও হয় তাহলে সে দাবিও মেনে নেয়া হবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের উন্নত স্বয়ংসম্পূর্ণ বাংলাদেশ গড়তে হলে দেশের সব নাগরিকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা একান্ত প্রয়োজন। একই সাথে আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার কারণে যারা উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করতে ৩০ বছর পার করে ফেলেন সেই সব মেধাবী শিক্ষার্থীকে রাষ্ট্রের উন্নতিতে কাজে লাগাতে চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫ করা একটি যৌক্তিক দাবি। কিন্তু অতীব দুঃখের বিষয় আমরা দীর্ঘদিন ধরে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে প্রায় ৩০ লাখ শিক্ষিত সমাজের যৌক্তিক দাবি আদায়ের লক্ষ্যে আন্দোলন করে আসছি। সরকার আমাদের এই যৌক্তিক দাবিকে তোয়াক্কা না করে লাখ লাখ বেকার শিক্ষিত সমাজকে অপমান-অবহেলা-অবমাননা করেই আসছে।

বক্তারা সরকারের উদ্দেশে আহ্বান জানিয়ে বলেন, যদি মুজিববর্ষে মুজিবীয় আদর্শকে ধারণ করে স্বনির্ভর উন্নত বাংলাদেশ গঠন করতে হবে তবে লাখ লাখ শিক্ষার্থীর প্রাণের যৌক্তিক দাবিসমূহ এই মুজিববর্ষেই মেনে নিতে হবে। এছাড়াও এই সরকার তাদের নির্বাচনী ইশতেহারে বলেছিল, তারা ক্ষমতায় আসলে চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫সহ ৪ দফা বাস্তবায়ন করবে এবং ২০২১ সালের মধ্যে দেড় কোটি বেকার শিক্ষিত সমাজের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করবেন।

আমরা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে তার নির্বাচনী ইশতেহার পূরণের জন্য বিনীত আহ্বান জানাই। এই মুজিববর্ষেই (আগামী ১৭ মার্চের মধ্যেই) যদি চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫সহ ৪ দফা মেনে নেয়া না হয় তবে অতিশীঘ্রই ছাত্র এবং যুব সমাজকে নিয়ে ৩৫সহ ৪ দফা এবং বেকার মুক্তির গণঅভ্যুত্থানের ডাক দেয়া হবে। আশা করি প্রধানমন্ত্রী মুজিববর্ষকে সফল করার উদ্দেশে আমাদের যৌক্তিক দাবি অতিশীঘ্রই মেনে নিবেন।