• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ২২ মে ২০১৯, ৮ জৈষ্ঠ্য ১৪২৫, ১৬ রমজান ১৪৪০

গবেষণা ও মুক্তিযুদ্ধের বইয়ে পাঠকের আলাদা আকর্ষণ

প্রকাশক শাহাদাত হোসেন

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , সোমবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

image

গল্প ও উপন্যাসের পাশাপাশি গবেষণা ও মুক্তিযুদ্ধের বইয়ের প্রতি পাঠকের আলাদা আকর্ষণ রয়েছে বলে জানিয়েছেন অন্বেষা প্রকাশনীর কর্ণধার শাহাদাত হোসেন। তিনি বলেন, ‘তরুণদের মধ্যে কিছু সিরিয়াস পাঠক তৈরি হচ্ছে যারা গল্প ও উপন্যাসের পাশাপাশি গবেষণা ও মুক্তিযুদ্ধের বইয়ের প্রতি আগ্রহী হচ্ছেন। আমাদের কাছে কিছু ক্রেতা এসে গবেষণাধর্মী বই চাচ্ছেন, কিন্তু আমরা দিতে পারছি না। এটা সাহিত্যের জন্য খুবই ভালো দিক। এর মাধ্যমে মানসম্মত পাঠক তৈরি হচ্ছে যাদের জন্য মৌলিক সাহিত্যের বাজার বড় হবে। গতকাল সংবাদ’র সঙ্গে সাক্ষাৎকারে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

সংবাদ : বইমেলা কেমন চলছে?

শাহাদাত হোসেন : এবারের বইমেলা অন্যবারের চেয়ে সাজানো গোছানো। প্রথমদিন থেকেই দর্শণার্থীদের উপভোগ্য করা হয়েছে। ভেতরে খাবার পানি, ওয়াশরুম, নিরাপত্তা খুবই ভালো। পরিবেশও সুন্দর।

সংবাদ : এবার অন্বেষা প্রকাশনী থেকে কয়টি বই আসছে?

শাহাদাত হোসেন : এবার ৫০টিরও বেশি বই আসছে। ইতোমধ্যেই ৪০টি বই মেলায় চলে এসেছে। বইমেলা উপলক্ষে অনেক আগে থেকেই আমাদের প্রস্তুতি ছিল।

সংবাদ : প্রতিবছর বইমেলা উপলক্ষ্যে কত সংখ্যক বই প্রকাশ হয়?

শাহাদাত হোসেন : সারাবছর আমরা বইমেলাকে কেন্দ্র করেই বই প্রকাশ করি। তাই আমাদের মূল আকর্ষন থাকে বইমেলার প্রতি।

সংবাদ : মেলার সার্বিক ব্যবস্থাপনা কেমন?

শাহাদাত হোসেন : মেলার সার্বিক ব্যবস্থাপনা খুবই ভালো। তবে একটি বিষয় বাংলা একাডেমিকে লক্ষ্য রাখতে হবে তা হলো- স্টল বরাদ্দটা একটু আগে দিতে হবে। স্টল বরাদ্দ পরে দেওয়ার কারণে আমরা স্টল ভালোমতো নির্মাণ করার আগেই মেলা শুরু হয়ে যায়। একটু সময় নিয়ে যদি স্টল নির্মাণ করতে পারি তাহলে মেলা শুরুর আগেই আমরা স্টল সাজানোটা ভালো করতে পারবো।

সংবাদ: বর্তমান লেখকদের নিয়ে আপনার মূল্যায়ন কি?

শাহাদাত হোসেন: বর্তমানে লেখকরা ভালোই করছে। তবে আমার মনে হয়, যারা নতুন লেখক তাদেরকে আগে সাহিত্য চর্চাটা করে তারপর বই প্রকাশ করা উচিত। তাহলে তারা সাহিত্য সম্পর্কে নিজের মূল্যায়নটা বুঝতে পারবে। যেমন কোন লেখক একটি বই লিখেই তা প্রকাশের জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়েন। এটা না করে, তারা বিভিন্ন সাহিত্য পত্রিকা বা দৈনিক পত্রিকাগুলোর সাহিত্য পাতায় লিখে সাহিত্য চর্চা করুক। তারপর বই লিখুক। তাহলে তার লেখা অন্যদের চেয়ে ভালো হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে।

সংবাদ: বর্তমানে কোন ধরনের বইয়ের প্রতি পাঠকের চাহিদা বেশি?

শাহাদাত হোসেন: বর্তমানে গল্প ও উপন্যাসের চাহিদা বেশি। পাশাপাশি গবেষণা ও মুক্তিযুদ্ধের বইয়ের প্রতি তরুণ পাঠকের আগ্রহ বাড়ছে। এমনও হচ্ছে, আমাদের কাছে কিছু ক্রেতা এসে গবেষণাধর্মী বই চাচ্ছেন কিন্তু আমরা দিতে পারছি না। গবেষণাভিত্তিক বইয়ের লেখক খুব কম রয়েছে। এ ধরনের লেখক ও বই বৃদ্ধি পেলে সাহিত্যজগতও উন্নত হবে।