• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২

চট্টগ্রাম কারাগারে

আসামিদের সুরক্ষায় নানা কার্যক্রম

সংবাদ :
  • চট্টগ্রাম ব্যুরো

| ঢাকা , বুধবার, ০৬ মে ২০২০

করোনা সংক্রমণ রোগ বিস্তার ও প্রতিরোধের ক্ষেত্রে কারাগারগুলো ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকে। কারাগারে কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাব বন্দী, সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও কর্মচারীর ওপরে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে। একটি সংক্রমণের ঘটনা কারাগারে অবস্থানরত মানুষের মধ্যে দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে এবং বন্দী ও কারাগারের কর্মীসহ সবাইকে একইভাবে ঝুঁকির মুখে ফেলতে পারে। এসব বিবেচনায় আসামিদের সুরক্ষার জন্য আরও একটি থার্মাল স্ক্যানার বসানো হয়েছে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে। সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও বেসরকারি কারা পরিদর্শক আজিজুর রহমান আজিজের ব্যক্তিগত উদ্যোগে বাড়তি সতর্কতার অংশ হিসেবে থার্মাল স্ক্যানারটি বসানো হয়েছে। বাইরে থেকে আসা কারও যদি জ্বর থাকে তবে তা থার্মাল স্ক্যানারেই ধরা পড়বে। বিশেষ করে বীর চট্টলার সিংহপুরুষ, গণমানুষের নেতা মরহুম এবিএম মহিদ্দিন চৌধুরী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে, তারই সুযোগ্য সন্তান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের নির্দেশনায় বেসরকারি কারা পরিদর্শক হিসেবে কারাগারের বন্দীদের জন্য মাস্ক, পিপিই, থার্মাল স্ক্যানার, জীবাণুনাশক স্প্রে বিতরণ করা হয়েছে। একই সঙ্গে বন্দীদের জন্য দেয়া শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের ১ লাখ টাকা অনুদানের চেক কারা কর্তৃপক্ষ বুঝে নিয়েছে। এর আগে গত সোমবার থার্মাল স্ক্যানারটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

সিনিয়র জেল সুপার কামাল হোসেন বলেন, আগেও (১৯ মার্চ) একটি থার্মাল স্ক্যানার বসানো হয়োছিল। সেটি ছিল সরকারি উদ্যোগে। এটি ব্যক্তি উদ্যোগে। তিনি বলেন, বাইরে থেকে আসা কারও যদি জ্বর থাকে তবে তা থার্মাল স্ক্যানারেই ধরা পড়বে। কারণ এই করোনাভাইরাসের মূল উপসর্গই হচ্ছে জ্বর। জ্বরের সঙ্গে অন্য উপসর্গও থাকতে পারে। এ সময় তিনি বেসরকারি কারা পরিদর্শক আজিজুর রহমান আজিজকে এগিয়ে আসার জন্য ধন্যবাদ জানান।