• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৩০ মহররম ১৪৪২, ০২ আশ্বিন ১৪২৭

সরকারের যথোপযুক্ত ব্যবস্থায়

অন্য দেশের চেয়ে করোনায় বাংলাদেশে মৃত্যু কম তথ্যমন্ত্রী

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , রোববার, ১৭ মে ২০২০

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, সরকারের যথোপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণেই বাংলাদেশে করোনায় মৃত্যুহার বিশ্বের অনেক দেশের চেয়ে কম রয়েছে। তথ্যমন্ত্রী গতকাল ঢাকায় তার সরকারি বাসভবনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর ‘সরকার মানুষ বাঁচাতে কোন ব্যবস্থা নেয়নি’-এমন মন্তব্যের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে একটি পরিসংখ্যানও তুলে ধরেন।

ওয়াল্ডোওমিটার তথ্য তুলে ধরে হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের ১.৪৮ শতাংশ মৃত্যুবরণ করেছে, যা ভারতে ৩.২ এবং পাকিস্তানে ২.১৪ শতাংশ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এ মৃত্যুহার শতকরা ৫.৯৬, যুক্তরাজ্যে ১৪.৩৬, স্পেনে ১০ এবং ইতালিতে ১৪.১১ শতাংশ। এ পরিসংখ্যানই বলে, সরকারের সময়োপযোগী পদক্ষেপে দেশে করোনায় মৃত্যু বহুদেশের চেয়ে অনেক কম। বিশ্বব্যাপী সরকারের প্রশংসা হলেও বিএনপি শুধু সরকারের পদক্ষেপগুলোকে প্রশ্নবিদ্ধ করা ও প্রশংসার বদলে সমালোচনা ও মিথ্যাচারে ব্যস্ত।

গবেষণা সংস্থার নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার হচ্ছে- এ বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা দেখতে পাই, যখন দেশে কোন দুর্যোগ দেখা দেয় বা মানুষ কোন বিপদে পড়ে, কিছু নিয়ে শঙ্কা-আশঙ্কায় থাকে, তখন কিছু নতুন নতুন গবেষণা সংস্থা গজিয়ে ওঠে। এগুলোকে অন্য সময় আর দেখা যায় না বা এরা কোন গবেষণাও করে না। সরকারের সমালোচনা করার জন্য ও বিরোধীদের হাতে সমালোচনার অস্ত্র তুলে দেওয়ার জন্যই এরা মনগড়া রিপোর্ট তৈরি করে। এ ধরনের মনগড়া রিপোর্ট জনসম্মুখে প্রকাশ গুজব রটনার শামিল। আমি আশা করবো, গুজব রটনার অপরাধ সংঘটন থেকে সবাই বিরত থাকবে।

তিনি আরও বলেন, এটা খুবই দুঃখজনক, কিছু বেসরকারি হাসপাতাল করোনা রোগীদের সেবা দেয়ার ক্ষেত্রে যেভাবে এগিয়ে আসা প্রয়োজন ছিল, সেভাবে আসেনি। অনেকগুলো হাসপাতাল, নিজেরাই অনেকটা বন্ধ করে রেখেছে। সেখানে কোন করোনা রোগী গেলে সেবা দেয়া তো দূরের কথা, তাকে অন্য কোথাও ঠেলে দেয়ার চেষ্টা চলছে, যা আমরা প্রতিনিয়ত পত্রিকায় দেখতে পাচ্ছি। কিছু বেসরকারি হাসপাতালের এ আচরণ অত্যন্ত অমানবিক। কারণ হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করা হয় মানুষকে সেবা দেয়ার জন্য। হাসপাতালের উদ্দেশ্য যদি বাণিজ্য হয়, তাহলে তাকে হাসপাতাল বলা কঠিন। আমরা দেখছি, সরকারের পক্ষ থেকে কোন হাসপাতালকে যখন ভাড়া নেয়ার কথা বলা হয়। তখন অস্বাভাবিক অর্থ দাবি করা হয়। ২০০ বেডের একটি হাসপাতাল মাসে ১৭ কোটি টাকা দাবি করেছে। একই সঙ্গে ডাক্তার-নার্সদের থাকা-খাওয়ার টাকাও দাবি করেছে যা অস্বাভাবিক। এই সময় বেসরকারি হাসপাতালগুলো বাণিজ্যের মানসিকতা পরিহার করে সেবার মানসিকতা নিয়ে এগিয়ে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেন ড. হাছান মাহমুদ।