• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ জিলকদ ১৪৪১

আদেশ অমান্য

অতিরিক্ত বিল তিন হাসপাতালের বিরুদ্ধে রিট

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , মঙ্গলবার, ৩০ জুন ২০২০

রোগী ভর্তি না করে সরকারি আদেশের লংঘন ও অতিরিক্ত বিল আদায়ের অভিযোগে ঢাকা ও চট্টগ্রামের তিনটি বেসরকারি হাসপাতালের পরিচালকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে। রিট আবেদনে তিন হাসপাতাল পরিচালকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে স্বাস্থ্য সচিবকে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারির আবেদন করা হয়েছে। স্বাস্থ্য সচিব ও পরিচালকদের বিবাদি করা হয়েছে রিটে।

ফেনীর দাগনভুঁইয়ার জাঙ্গালীয়া গ্রামের মৃত তফাজ্জল হোসেনের ছেলে জেবুল হোসেন রয়েল রিট আবেদন করেন। আইনজীবী ইয়াদিয়া জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকার আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত বিল আদায় এবং চট্টগ্রামের নিজাম রোডের মেট্রোপলিটন ও মেডিকেল সেন্টার হাসপাতালের বিরুদ্ধে রোগী ভর্তি না নেয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে।

ইয়াদিয়া জামান বলেন, গত রোববার রিট আবেদনটি বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চে দাখিল করা হয়েছে।

আবেদনে বলা হয়েছে, জেবুল হোসেনের মা মনছুরা বেগম (৬৭) দীর্ঘদিন অসুস্থ। গত তিন বছর ধরে তার কিডনি ডায়ালাইসিস করে আসছেন। হঠাৎ জ্বর ও উচ্চ রক্তচাপ দেখা দিলে গত ১ জুন রয়েল তার মাকে নিয়ে চট্টগ্রামের নিজাম রোডের মেডিকেল সেন্টার হাসপাতাল ও মেট্রোপলিটন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যান। অনুরোধ করার পরও হাসপাতাল দুটি তার মাকে ভর্তি না নিয়ে ফিরিয়ে দেয়।

গত ১১ মে সরকারের নির্দেশনায় বলা হয়, সব বেসরকারি হাসপাতাল/ক্লিনিকে সন্দেহভাজন কোভিড রোগীদের চিকিৎসার জন্য পৃথক ব্যবস্থা থাকতে হবে। চিকিৎসা সুবিধা থাকা সত্ত্বেও জরুরি চিকিৎসার জন্য আগত কোন রোগীকে কোনভাবেই ফেরত দেয়া যাবে না। রেফার করতে হলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের কোভিড হাসপাতাল নিয়ন্ত্রণ কক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে রোগীর চিকিৎসার বিষয়টি সুনিশ্চিত করে রেফার করতে হবে। দীর্ঘদিন ধরে যেসব রোগী কিডনি ডায়ালাইসিসসহ বিভিন্ন চিকিৎসা গ্রহণ করছেন তারা কোভিড আক্রান্ত না হয়ে থাকলে তাদের চিকিৎসা অব্যাহত রাখতে হবে। এ নির্দেশনার ব্যত্যয় ঘটলে বা কোন অভিযোগ প্রমাণিত হলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান এর বিরুদ্ধে প্রচলিত বিধান অনুসারে লাইসেন্স বাতিলসহ প্রয়োজনীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।