• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০, ১৯ আষাঢ় ১৪২৭, ১১ জিলকদ ১৪৪১

বটতলা রঙ্গমেলা নাট্যোৎসবে

শিশু প্রহর আড্ডা ও নাটক

আজকের নাটক : ফিয়ারলেস ও শুক

সংবাদ :
  • সাংস্কৃতিক বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯

image

শিশু প্রহর, মাস্টার ক্লাস, রঙ্গআড্ডা ও নাটক পরিবেশনার মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে চলছে আন্তজার্তিক নাট্যোৎসব ‘বটতলা রঙ্গমেলা ২০১৯’। উৎসবের ৮ম দিনে আজ ফিয়ারলেস ও শুক নাটক পরিবেশিত হবে। ভারত ও বাংলাদেশের দুটি নাট্যদল এই নাটকগুলো পরিবেশন করবে।

গতকাল সকালে শিশু প্রহরের মাধমে উৎসবের ৭ম দিন শুরু হয়। শুক্রবারের মতো আজও উৎসবের বিশেষ আকর্ষণ হিসেবে রয়েছে শিশুপ্রহর। শিশুদের কথা মাথায় রেখেই এই দু’দিন ঋদ্ধ মঞ্চে সকাল থেকে দুপুর অব্দি থাকছে শিশুদের নাটক। গতকাল সাড়ে ১০টায় প্রদর্শিত হয় বরিশাল শব্দাবলী থিয়েটারের নাটক ‘আওয়ার কিংডম’ ও দুপুর ১২টায় প্রদর্শিত হয় চট্টগ্রামের ফুলকী থিয়েটারের নাটক ‘পুঁথি পড়া পাখি পড়া’। বেলা ১১টায় সব শিশুর জন্য ছিল আঁকিবুকি অনুষ্ঠান। সিসিমপুরের সৌজন্যে সব শিশুদেরকেই দেয়া হয় সিসিমপুরের বই।

বিকেলে সুমন মঞ্চে তথ্যচিত্র ‘ফেরদৌসী মজুমদার : জীবন ও অভিনয়’ প্রদর্শনী। বিকোল ৫টায় দৃশ্যকলা ও নাট্যকলার যোগযোগ বিষয়ে ঢালী আল মামুন নেন মাস্টারক্লাস। এরপর সন্ধ্যা ৬টায় বহিরাঙ্গনের নাদিম মঞ্চে শুরু হয় সর্বনাম ব্যান্ড দলের গান। সন্ধ্যা ৭টায় বটতলা বিভাগীয় সম্মাননা তুলে দেয়া হয় চট্টগ্রাম বিভাগের নাট্যজন মিলন চৌধুরীকে এবং অন্তরালের সম্মাননা ২০১৯ তুলে দেয়া হয় আলোক সহযোগী মীর মোহাম্মদ বাদলকে। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় পদাতিক নাট্য সংসদের নাটক ম্যাকবেথ পরিবেশিত হয়। উইলিয়াম শেকসপিয়ারের এই নাটকটি অনুবাদ করেছেন সৈয়দ শামসুল হক এবং নির্দেশনা দিয়েছেন সুদীপ চক্রবর্তী। নাটক শেষে নাটকের অভিনয় শিল্পী ও কলাকুশলীদের হাতে স্মারক তুলে দেয়া হয়। এর পরপরই যথারীতি নির্দশকের মুখোমুখি পর্বে শুরু হয় রঙ্গআড্ডা।

আজ ‘বিহাইন্ড দ্য কার্টেন এ জার্নি উইথ বিভাস চক্রবর্তী’ তথ্যচিত্র প্রদর্শিত হবে। গায়ক শৈবাল বসু নৃত্য নাটকের ওপর নিবেন মাস্টারক্লাস। সন্ধ্যা ৬টায় নাট্যদল ঢাকা থিয়েটার পরিবেশন করবে নাটক ফিয়ারলেস। সন্ধ্যা ৭টায় জলপাইগুঁড়ি কলাকুশলী পরিবেশন করবে নাটক শুক। এ ছাড়াও যথারীতি দেয়া হবে বিভাগীয় ও অন্তরালের সম্মাননা। সবশেষে নির্দশকের মুখোমুখি পর্বে শুরু হয় রঙ্গআড্ডা।

গত ১৬ নভেম্বর থেকে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে শুরু হয় ১১দিন ব্যাপি এই নাট্যৎসব। এবার বাংলাদেশ, ইরান, ভারত এবং নেপালের নাট্যদলগুলোকে নিয়ে সাজানো হয়েছে ‘বটতলা রঙ্গমেলা ২০১৯’। তৃতীয়বারের মতো আয়োজিত এ উৎসব চলবে ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত। প্রতিদিন রঙ্গমঞ্চে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় থাকবে নাটকের মঞ্চায়ন। এ ছাড়াও রয়েছে অন্য সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান এবং গুণীজন সম্মাননা। ২৬ নভেম্বর রাত নয়টায় উৎসবের পর্দা নামবে।