• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬, ২১ রবিউল আওয়াল ১৪৪১

গাজীপুরে

নিখোঁজের ১৩ ঘণ্টা পর পোশাক শ্রমিকের লাশ উদ্ধার

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, শ্রীপুর (গাজীপুর)

| ঢাকা , শনিবার, ০৯ নভেম্বর ২০১৯

নিখোঁজের ১৩ ঘণ্টা পর গাজীপুরের শ্রীপুরে বাসা থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে একটি গর্ত থেকে পোশাক কারখানার এক তরুণ শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সকালে পৌর এলাকার বহেরারচালা গ্রামে একটি কলাবাগানের ভেতর পুরনো একটি গর্ত থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম মোল্লা জানিয়েছেন, ওই বাগানের ভেতর গলাকেটে হত্যার পর প্রায় ১৫ থেকে ২০ গজ দূরে গর্তে মরদেহ ফেলে পালিয়ে যায় খুনিরা। মরদেহ রেখে গর্তটি লতাপাতা দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছিল।

নিহতের নাম আরিফুল হক আসিফ (২০)। আসিফ কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার রামদাস ধনিরামপুর গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে। তিনি গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর এলাকার বহেরারচালা গ্রামে ভাড়া বাসায় থেকে পাশের কেএসএস নিট কম্পোজিট কারখানায় চাকরি করতেন।

আসিফের সঙ্গে একইঘরে ভাড়ায় থাকা মেহেদি হাসান জানান, উলিপুরে একটি কারিগরি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র ছিলেন আসিফ। পড়ালেখার খরচ জোগাতে পারছেন না বলে গত প্রায় দুই মাস আগে পোশাক কারখানায় চাকরি নিয়েছিলেন সে (আসিফ)। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গত অক্টোবর মাসের বেতন পান আসিফ। বেতন নিয়ে সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে কারখানা থেকে বের হয়েই নিখোঁজ হন। রাতে খোঁজাখুঁজি করেও তার কোন হদিস পাননি তারা। গতকাল সকাল ৮টার দিকে কলাবাগানের শ্রমিকরা কাজ করতে গিয়ে বাগানের ভেতর রক্ত দেখে সন্দেহ হয় তাদের। পরে রক্তের দাগ ও কোন কিছু টেনে নিয়ে যাওয়ার আলামত দেখে গর্তের ভেতর মরদেহ খুঁজে পায় তারা।

খবর পেয়ে সকাল ৯টার দিকে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

শ্রীপুর থানার এসআই শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘মরদেহের সঙ্গে থাকা একটি ছোরা ও রশি জব্দ করা হয়েছে। হত্যাকা-টির তদন্ত চলছে। আশা করছি, খুব দ্রুতই এর রহস্য উদ্ঘাটিত হবে।’