• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ২৭ আষাঢ় ১৪২৭, ১৯ জিলকদ ১৪৪১

শিশু-কিশোর নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব

চতুর্থ দিনে বিভিন্ন জেলার নাটক মঞ্চায়ন

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

image

উৎসবে পরিবেশিত একটি নাটকের দৃশ্য -সংবাদ

শিল্পকলা একাডেমিতে চলছে দেশের সর্ববৃহৎ নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব ‘চতুর্দশ জাতীয় শিশু-কিশোর নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৯’। শিল্পকলা একাডেমি ও পিপলস থিয়েটার অ্যাসোসিয়েশনের যৌথ আয়োজিত উৎসবের চতুর্থ দিনেও বেশ কয়েকটি নাটক মঞ্চস্থ করা হয়েছে। গতকাল একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার পরীক্ষণ থিয়েটার হলে বিকেল ৫টা থেকে ম. নিজামের রচনায় অজয় দাসের নির্দেশনায় স্বদেশ নাট্যাঙ্গন রাজবাড়ী পরিবেশন মঞ্চস্থ হয় নাটক ময়না মেয়ের বিয়ে, ড. সেলিম আলদীন রচিত অনিক সাহা নির্দেশিত জেলা শিল্পকলা একাডেমি নেত্রকোনা পরিবেশন করে নাটক জন্ডিস ও বিবিধ বেলুন, তারেকুজ্জামান তারেক এর রচনায় ও নির্দেশনায় আমাদের থিয়েটার দিনাজপুর পরিবেশন করে নাটক চোখ, আসাদুল ইসলামের রচনায় মেহেদী হাসান সোহাগের নির্দেশনায় সোনালী থিয়েটার সেতাবগঞ্জ দিনাজপুর পরিবেশন করে নাটক নরমেধ।

একাডেমির স্টুডিও থিয়েটার হলে বিকেল ৫টা থেকে জেলা শিল্পকলা একাডেমি পিরোজপুর, ময়মনসিংহ, ঝালকাঠি, দিনাজপুর, লালমনিরহাট, নেত্রকোনা, রাজবাড়ী ও কুমিল্লার শিশুদল পরিবেশন করে আবৃত্তি, একক অভিনয় ও ৭ই মার্চের ভাষণ এবং এস এম মিজানুর রহমানের রচনায় খোকন হাসান চাঁদের নির্দেশনায় সন্ধান লিটল থিয়েটার ঢাকা পরিবেশন করে নাটক হনন ও শেখ আবু মোহাম্মদ জুবায়ের জনির রচনায় তাপস ভট্টাচার্যের নির্দেশনায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি শিশু নাট্যদল পিরোজপুর পরিবেশন করে নাটক শেখ মুজিব আমার পিতা।

একাডেমির জাতীয় সঙ্গীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে বিকেল ৫টা থেকে মিহির হারুনের রচনা ও নির্দেশনায় শিশু থিয়েটার মুক্তাগাথা ময়মনসিংহ পরিবেশন করে নাটক খোকার গল্প, কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গল্প অবলম্বনে শাহজাহান চৌধুরীর নাট্য রুপান্তর ও নির্দেশনায় দ্যুতি : ফয়জুন্নেসা স্কুল নাট্য ও সাংস্কৃতিক দল কুমিল্লা পরিবেশন করে নাটক ছুটি, আমজাদ হোসেনের রচনায় দিপংকর সাহা মানিক এর নির্দেশনায় প্রগতি থিয়েটার পার্বতীপুর দিনাজপুর পরিবেশন করে নাটক জয়বাংলা একটি সেøাগান, শুভংকর চক্রবর্তীর রচনায় আবুল মনসুরের নির্দেশনায় অনসাম্বল খিয়েটার ময়মনসিংহ পরিবেশন করে নাটক মরা এবং আজিজুল হক মোল্লার রচনা ও নির্দেশনায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি শিশু নাট্যদল লালমনিরহাট পরিবেশন করে নাটক গৃহস্থের একদিন।

একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে বিকেল ৫টা থেকে জেলা শিল্পকলা একাডেমি পিরোজপুর, ময়মনসিংহ, ঝালকাঠি, দিনাজপুর, লালমনিরহাট, নেত্রকোনা, রাজবাড়ী, কুমিল্লা ও ঢাকা পরিবেশন করে সমবেত সঙ্গীত, একক সঙ্গীত ও সমবেত নৃত্য। এছাড়াও একাডেমির জাতীয় চিত্রশালার চিত্রকলা স্টুডিওতে প্রতিদিন দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৪টা জেলা থেকে আগত শিশুদের অংশগ্রহণে চিত্রাঙ্কন এবং একাডেমির জাতীয় সঙ্গীত ও নৃত্যকলা প্রাঙ্গণে শিশুদের অংশগ্রহণে বঙ্গবন্ধুকে উৎস্বর্গকৃত পুষ্পকানন নির্মাণ এবং একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা প্লাজায় প্রতিদিন বিকেল ৪টা থেকে পৌনে ৫টা জেলা থেকে আগত শিশুদের নিয়ে সমাবেশ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী ও মঞ্চকুড়ি পদক প্রদান করা হয় ও রাত ৯টা থেকে সাড়ে ৯টা বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।

উৎসব আয়োজনে গতকাল মঞ্চকুঁড়ি পদক পান স্বদেশ নাট্যাঙ্গন, রাজবাড়ী-শারমীন খাতুন, জেলা শিল্পকলা একাডেমি শিশু নাট্যদল, নেত্রকোনা-প্রিয়া দাস, আমাদের থিয়েটার, দিনাজপুর-কানিজ ফাতেমা শ্রবন্তী, শিশু একাডেমি, ঢাকা-সাদমান সারার যায়ান, সোনালী থিয়েটার, সেতাবগঞ্জ, দিনাজপুর-সানজিদা সরকার, জেলা শিল্পকলা একাডেমি, পিরোজপুর-তনুশ্রী ডাকুয়া ও নেয়ামুল হক নিয়ন, ময়মনসিংহ-মায়াবী রেনেসা ও সিঁথি সরকার, ঝালকাঠি-দিপা দে ও নুসরাত জাহান কেয়া, দিনাজপুর-সানজিদা জামান শ্রাবণী ও মেধা তিথি রায় ইমু, লালমনিরহাট -এষা আদ্রিতা দাস ও অস্মিতা সাহা, নেত্রকোনা- অরণিমা সরকার অথৈ ও প্রযুক্তা সেন অথৈ, রাজবাড়ী- রাজিয়া আক্তার মিম ও তাসকিয়া বিনতে আরিশা, কুমিল্লা- সেঁওতি সাহা পূজা ও প্রত্যাশা সাহা, সন্ধান লিটল থিয়েটার, ঢাকা- হাসান বাপ্পি, জেলা শিল্পকলা একাডেমি শিশু নাট্যদল, পিরোজপুর-মো. আবতাহী, শিশু থিয়েটার, মুক্তাগাছা, ময়মনসিংহ-ইফসানুর রশিদ আরিয়ান, দ্যুতি : ফয়জুন্নেসা স্কুল নাট্য ও সাংস্কৃতিক দল, কুমিল্লা- সাদিকাতুন নূর আনিকা, প্রগতি থিয়েটার, পার্বতীপুর, দিনাজপুর- সাদমান আল সিয়াম, অনসাম্বল থিয়েটার, ময়মনসিংহ-জোহায়ের জাহিন, জেলা শিল্পকলা একাডেমি শিশু নাট্যদল, লালমনিরহাট-মো. আয়েশা খাতুন আশা এবং বিশেষ শিশু মঞ্চকুঁড়ি পদক পেলেন কুমিল্লা-মনিরা খায়ের অন্তু, লালমনির হাট- শান্তনা রানী, ঝালকাঠি- ইয়াসিন তারেক খলিফা, ময়মনসিংহ-আর রাফী আঞ্জুম, রাজবাড়ী- লাবণ্য রানী মজুমদার, নেত্রকোনা- হৃদয় হাসানী ও দিনাজপুর জেলার থেকে আবু তাহের।

এদিন শিল্পকলা একাডেমিতে শিশু-কিশোর নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসবে অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিভিন্ন জেলা থেকে আগত শিশুদলের হাতে সনদপত্র তুলে দেন এবং বিভিন্ন জেলার পরিবেশনার বিষয়ে অনুভুতি ব্যক্ত করেন সায়মন সাদিক, তমা মির্জা, তানভীন সুইটি, মুরাদ পারভেজ, গাজী রাকায়েত, অনন্ত হীরা, পূর্ণলক্ষ চাকমা, নূনা আফরোজ, মো. আনিসুর রহমান, শিমূল মোস্তফা, আসফ উদ দৌলা, আবু হেনা রনি, মোস্তাক আহমেদ, মো. এরশাদ হাসান, রোজী সিদ্দিকী, মো. আল হেলাল, শাহেদ শরীফ, আলী আহমেদ মুকুল, সৌম্য সালেক, ফুয়াদ চৌধুরী, চন্দন দত্ত, মৌটুসী পার্থ, এস আই টুটুল, আনিসুল ইসলাম হীরু, শিবলী মোহাম্মদ, বদরুল আলম ভূঁইয়া ও আইরিন পারভীন লোপা।

আজ উৎসবের ৫ম দিনেও বেশ কয়েকটি নাকট মঞ্চস্থ হবে। এছাড়া জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে বিকেল ৫টা থেকে সংগীত ও নৃত্য পরিবেশণ করবে জেলা শিল্পকলা একাডেমি বগুড়া, কুড়িগ্রাম, চাঁদপুর, ভোলা, পাবনা, মুন্সিগঞ্জ, নোয়াখালি ও বরগুনার শিশুশিল্পী দল। প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার উৎসব শুরু হয়। ৬৪ জেলার সাংস্কৃতিক দল এবং ৯৫টি শিশু নাট্য সংগঠনের দশ হাজারেরও বেশি শিশুর অংশগ্রহণে ২০-২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ উৎসব অনুষ্ঠিত হবে। উৎসবে একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা, জাতীয় চিত্রশালা, জাতীয় সংগীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তন ও একাডেমি প্রাঙ্গণসহ প্রতিদিন ৮টি ভেন্যুতে ৯টি জেলার ৮৫টি পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।