• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১

৮০তম জন্মদিনে নাগরিক সংবর্ধনায় বক্তারা

আদর্শ থেকে একচুলও নড়েননি পঙ্কজ ভট্টাচার্য

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , মঙ্গলবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ঐক্য ন্যাপ সভাপতি পঙ্কজ ভট্টাচার্য অর্থ-প্রতিপত্তি ও ক্ষমতার লোভ এবং ভয়-ভীতির ঊর্ধ্বে থেকে তার আদর্শকে ৮০ বছর লালন-পালন করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন বক্তারা। গতকাল পঙ্কজ ভট্টাচার্যের ৮০তম জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত নাগরিক সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তারা একথা বলেন। অনুষ্ঠানে উপস্থাপিত সম্মাননাপত্রে রামেন্দু মজুমদার বলেন, স্বাধীকার থেকে স্বাধীনতা পর্যন্ত তার নেতৃত্ব তরুণদের পথ দেখিয়েছে। তিনি একজন উজানে চলা শেরপা।

‘পঙ্কজ ভট্টাচার্যের ৮০তম জন্মদিন উদযাপন নাগরিক কমিটি’র আহ্বায়ক জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামানের সভাপতিত্বে নাগরিক সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানের মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন পঙ্কজ ভট্টাচার্যের স্ত্রী রাখী দাস পুরকায়স্ত। জন্ম দিবস উপলক্ষে পঙ্কজ ভট্টাচার্যকে উত্তরীয় পরিয়ে দেন জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান এবং সম্মাননা পত্র উপস্থাপন করেন নাট্য ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। চিত্রশিল্পী কিরীটী রঞ্জন বিশ্বাসের আঁকা পঙ্কজ ভট্টাচার্যের প্রতিকৃতি তার হাতে তুলে দেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ ও অন্যসব নেতারা। অনুষ্ঠানে পঙ্কজ ভট্টাচার্যের প্রায় ৬০ দশকের রাজনৈতিক কর্মময় জীবনের ওপর লতা আহমেদ পরিচালিত তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। সভার শুরুতে সমবেত সংগীত পরিবেশন করেন সংস্কৃতি মঞ্চের শিল্পীরা, এছাড়া রবীন্দ্র সংগীত পরিবেশন করেন মিতা হক, নজরুল সংগীত পরিবেশন করেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী শাহীন সামাদ।

রামেন্দু মজুমদার তার সম্মাননা পত্রে বলেন, স্বাধীকার থেকে স্বাধীনতা পর্যন্ত তার নেতৃত্ব তরুণদের পথ দেখিয়েছে। পাকিস্তান সময়ে জেলে যাওয়া এবং জেল থেকে বের হওয়া ছিল তার নিত্য নৈমিত্তিক ব্যাপার। পরবর্তীতে মুক্তিযুদ্ধের ২নং সেক্টরে সংগঠক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। আপদমস্তক বিপ্লবী এই রাজীতিবিদের সত্তা জুড়ে রয়েছে সাংস্কৃতিক সত্তা। তিনি অর্থ প্রতিপত্তি, ক্ষমতার লোভের ঊর্ধ্বে থেকে বাংলাদেশের মানুষের পাশে থেকেছেন। পঙ্কজ ভট্টাচার্য একজন উজানে চলা শেরপা। সম্মাননা পত্র উপস্থাপনের পর এই রাজনীতিবিদের সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য উপস্থাপন করেন।

৮০তম জন্মদিন উপলক্ষে পঙ্কজ ভট্টাচার্যকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি, বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টি, ঐক্য ন্যাপ, সাম্যবাদী দল, সমমনা নারায়ণগঞ্জ, বাংলাদেশ জাসদ, বাংলাদেশ শিশু সংগঠন ঐক্যজোট, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, গণফোরাম, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদ, বহ্নিশিখা ,বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ ঐক্য পরিষদ, পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন, আইনজীবী ঐক্য পরিষদ, বাংলা একাডেমি, কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসর নারায়ণগঞ্জ জেলা, ঢাকা পদাতিক, গৌরব একাত্তর, বাংলাদেশ নৃত্যশিল্পী সংস্থা, গণতন্ত্রী পার্টি সহ ৫০টির অধিক সংগঠন। এছাড়াও ব্যক্তিগত ভাবে নৌ-পরিবহন উপমন্ত্রী খালেদ মাহমুদ চৌধুরী এবং বাংলা একাডেমির সাবেক মহাপরিচালক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন প্রমুখ ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

গোলাম কুদ্দুস বলেন, অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ গড়ার অন্যতম সৈনিক পঙ্কজ ভট্টাচার্য। তিনি তরুণ বয়সে যে আদর্শকে ধারণ করেছিলেন ৮০ বছর সেই আদর্শ থেকে এক চুলও নড়েননি। তিনি লোভ, ভয়ভীতির ঊর্ধ্বে থেকে তার আদর্শকে লালন করেছেন।

সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া বলেন, উনি যা বিশ্বাস করতেন ব্যক্তিগত জীবনেও তিনি সেই বিশ্বসের চর্চা করেছেন। তরুণ রাজনীতিবীদদের তার আদর্শকে চর্চা করতে হবে।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি আয়শা খানম বলেন, পঙ্কজ ভট্টাচার্য স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বিজ্ঞান ভিত্তিক সমাজ গড়ার পথ দেখিয়েছেন। অসাম্প্রদায়িক চেতনার পাশাপাশি নারী আন্দোলনে তার অগ্রণী ভূমিকা দেশের নারী সমাজকে ব্যাপকভাবে উপকৃত করেছে।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, ইতিহাসের গতি সবসময় একই গতিতে চলে না। ইতিহাস যখন উজানের পথে ছিল তখন পঙ্কজ ভট্টাচার্য সেই তরীর হাল ধরেছেন।