• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভর্সিটিতে ‘৪র্থ শিল্প বিপ্লব ও ভবিষ্যতের কাজ’ শীর্ষক সেমিনার

| ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১০ অক্টোবর ২০১৯

image

বাংলাদেশ সরকারের আইসিটি বিভাগের এটুআই প্রকল্পের উদ্যেগে ‘৪র্থ শিল্প বিপ্লব ও ভবিষ্যতের কাজ’ শীর্ষক এক সেমিনার গত ২ অক্টোবর ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ব্যাঙ্কুয়েট হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের আইসিটি বিভাগের এটুআই প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সাবেক যুগ্ম সচিব ড. মো. আবদুল মান্নান। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এটুআই প্রকল্পের পলিসি স্পেশালিস্ট (স্কিল ফর এমপ্লয়মেন্ট) এইচ এম আসাদ উজ জামান। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলামের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরও উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল পরিবারের প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ নূরুজ্জামান, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির রেজিস্টার অধ্যাপক ইঞ্জিনিয়ার একেএম ফজলুল হক, বাংলাদেশ স্কিল ডেভলপমেন্ট ইনস্টিটিউটের উপদেষ্টা কেএম হাসান রিপন, বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল অনুষদের ডিন, সহযোগী ডিন ও বিভাগীয় প্রধানগণ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মো. আবদুল মান্নান বলেন, আসন্ন চতুর্থ শিল্প বিপ্লব মোকাবেলার জন্য সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে একযোগে কাজ করতে হবে। এ সময় তিনি নিজের উদ্ভাবিত কিছু প্রকল্পের কথা উল্লেখ করেন এবং ভবিষ্যতে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। ‘ভবিষ্যতের দক্ষতা: উদীয়মান দক্ষতার সন্ধান ও বাংলাদেশে অটোমেশনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনের সময় এইচ এম আসাদ উজ জামান বলেন, বাংলাদেশ সরকার ভবিষ্যতের শিল্প বিল্পব মোকাবিলার দিকে গুরুত্ব দিচ্ছে। কারণ ইতোমধ্যে ৪র্থ শিল্প বিপ্লবের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার জন্য যেসব দক্ষতা প্রয়োজন সেসব দক্ষতা অর্জনের জন্য এখন থেকেই মনোযোগী হতে হবে। এসময় তিনি গবেষণা ফলাফল তুলে ধরেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।