• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ৩১ জুলাই ২০২০, ৯ জিলহজ ১৪৪১, ৩১ জুলাই ২০২০

এটুআই ইনোভেশন ল্যাব কর্তৃক স্বল্পমূল্যের অ্যাম্বুলেন্স উদ্ভাবিত

| ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০৪ জুলাই ২০১৯

image

‘কাউকে পেছনে ফেলে নয়’ ইউএনডিপি’র এমন অঙ্গীকারকে সামনে রেখে এটুআই ইনোভেশন ল্যাব এর তত্ত্বাবধানে উদ্ভাবিত স্বল্পমূল্যের দু’টি অ্যাম্বুলেন্স রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্প থেকে জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন হাসপাতালে রোগী পরিবহনের জন্য রিসার্চ ট্রেনিং এ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট (আরটিএম) ইন্টারন্যাশনাল এর নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। গত ২৭ জুন কক্সবাজার সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে আয়োজিত হস্তান্তর অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ আবুল কালাম এনডিসি, এটুআই এর পক্ষ থেকে এটুআই এর পরিচালক (যুগ্ম সচিব) মো: আবদুস সবুর ম-ল, ইউএনএফপি এর চীফ অফ হেলথ্ সত্যনারায়ণ ডোরাস্বামী এবং ইউএনএফপি এর সহযোগী সংস্থা আরটিএমআই এর নির্বাহী পরিচালক সায়েদ জগলুল পাশা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কক্সবাজার এর জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ আবুল কালাম এনডিসি, বলেন, এই স্বল্পমূল্যের অ্যাম্বুলেন্সটি শুধুমাত্র গর্ভবতী নারী কিংবা রোগী পরিবহনের ক্ষেত্রেই সাহায্য করবে না বরং রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পের রোগীদের হাসপাতালে নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অনেক অর্থ ব্যয়ও হ্রাস করবে।

এই স্বল্পমূল্যের অ্যাম্বুলেন্সটি সম্পূর্ণ স্থানীয় প্রযুক্তি ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে। অ্যাম্বুলেন্সটি প্রাথমিকভাবে উদ্ভাবন করেন যশোরের মিজানুর রহমান। এই অ্যাম্বুলেন্সে একজন রোগী এবং দুই’জন যাত্রী বহন করা সম্ভব এবং এটি প্রতি লিটারে ২৫ কি.মি. পথ পাড়ি দিতে সক্ষম। অ্যাম্বুলেন্সটি তৈরিতে সর্বনিম্ন খরচ পড়ছে ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা, তবে অ্যাম্বুলেন্সটিকে বিশেষায়িত করার ভিত্তিতে এর খরচ কিছুটা বৃদ্ধি পেতে পারে। স্বল্পমূল্যের এই অ্যাম্বুলেন্সটি এটুআই ইনোভেশন ফান্ড এর ৯ম রাউন্ডে পুরস্কার প্রাপ্ত হয়। উদ্ভাবিত অ্যাম্বুলেন্সটি দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল হতে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা পাওয়া যায় (যেমন- প্রাইমারি ও সেকেন্ডারি স্বাস্থ্যকেন্দ্র) অথবা উন্নত অ্যাম্বুলেন্স সেবা পাওয়া যায় এমন স্থানে রোগী আনা-নেয়ার কাজে ব্যবহার করা যাবে। জাতিসংঘের জনসংখ্যা তহবিল (ইউএনএফপি) রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সহযোগিতার জন্য এ দু’টি অ্যাম্বুলেন্স ক্রয় করেছে এবং এর সহযোগী সংস্থা আরটিএম ইন্টারন্যাশনাল তা পরিচালনা করবে।

হস্তান্তর অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে ইউএনডিপি এর হেড অব কমিউনিকেশনস মো. আবদুল কাইয়ুম, ইউএনএফপি এর হেড অব সাব অফিস কক্সবাজার, রোজলিডা রাফায়েল এবং ইউএনএফপি এর প্রোগ্রাম এনালিস্ট এসআরএইছআর শেইখ মোহাম্মদ জাকারিয়া এবং বিভিন্ন বিদেশি ও দেশি সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।