• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৮, ১১ বৈশাখ ১৪২৪,৭ শাবান ১৪৩৯

‘প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ‘নৈতিকভাবে অযোগ্য”

সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক

| ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৭ এপ্রিল ২০১৮

image

যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ‘নৈতিকভাবে অযোগ্য’ নেতা হিসেবে অভিহিত করেছেন দেশটির কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার এফবিআই-এর সাবেক পরিচালক জেমস কোমি। একইসঙ্গে ট্রাম্পকে বিপজ্জনক ব্যক্তি হিসেবে উল্লেখ করে তিনি মার্কিন প্রাতিষ্ঠানিক ও সাংস্কৃতিক প্রথাগুলোর ‘মারাত্মক ক্ষতি’ করছেন বলেও অভিযোগ করেছেন কোমি। দেশটির টেলিভিশন এবিসি নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে কোমি এসব মন্তব্য করেছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

২০১৬ সালে ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট প্রার্থী থাকার সময় তার প্রচারণা শিবিরের সঙ্গে রাশিয়ার কথিত সংশ্লিষ্টতা ও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার সম্ভাব্য হস্তক্ষেপ নিয়ে এফবিআইয়ের তদন্ত চলাকালে গত বছরের মে’তে কোমিকে বরখাস্ত করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এদিকে গত রোববার রাতে ওই সম্প্রচার করা ওই সাক্ষাৎকারে এবিসি নিউজের জর্জ স্টিফানোপোলাসকে সাবেক এফবিআই পরিচালক বলেন, ‘ট্রাম্প মানসিকভাবে অক্ষম বা পাগলের প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছেন আমি তা বলব না। আমার মনে হয় না তিনি স্বাস্থ্যগত দিক দিয়ে প্রেসিডেন্ট হওয়ার অনুপযুক্ত। এ সময় ট্রাম্প সম্পর্কে কোমি আরও বলেন, ‘একজন ব্যক্তি, যিনি নারীদের বিষয়ে এমনভাবে কথা বলেন এবং ব্যবহার করেন যেন তারা মাংসপি-, যিনি ছোট-বড় সব বিষয়ে অবলীলায় মিথ্যা কথা বলেন এবং মার্কিন জনগণকে তা বিশ্বাস করতে বলেন, নৈতিকভাবে সেই ব্যক্তি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হওয়ার যোগ্য নন। তাই ‘নৈতিকভাবে তিনি প্রেসিডেন্ট হওয়ার অযোগ্য।’ তিনি আরও বলেন, ঐতিহ্যবাহী মার্কিন মূল্যবোধের প্রতি আমাদের প্রেসিডেন্টের অবশ্যই শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা থাকতে হবে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো সত্যি বলা। ট্রাম্প প্রসাশন তা করতে অক্ষম হয়েছেন।

এনবিসিকে দেয়া বিশেষ ওই সাক্ষাৎকারে কোমি জানিয়েছেন, ট্রাম্পের মস্কো সফর নিয়ে (২০১৩ সালে মস্কো সফরের সময় একটি হোটেলে যৌনকর্মীদের সঙ্গে ট্রাম্পের অবস্থান করা) যে অভিযোগ ওঠেছে তার প্রমাণ রাশিয়ার হাতে আছে কি-না সে বিষয়ে তিনি নিশ্চিত না হলেও তা থাকার ‘সম্ভাবনা’ রয়েছে। কোমি জানান, মস্কোর ওই হোটেলে রাত যাপন করেননি এবং যৌন কর্মীদের নিয়ে দাবি করা ঘটনাটি সত্য নয় বলে ট্রাম্প তাকে জানিয়েছেন। এসব বিষয় নিয়ে ‘এ হায়ার লয়ালিটি’ নামের কোমির লেখা একটি বই প্রকাশ পাওয়ার কথা আজ। এই বইটির নামও তার সঙ্গে ট্রাম্পের কথপোকথন থেকে নেয়া হয়েছে বলে সাক্ষাৎকারে এবিসিকে জানিয়েছেন কোমি। এদিকে বইটির আসন্ন প্রকাশ ও এসিবিতে দেয়া কোমির সাক্ষাৎকারকে কেন্দ্র করে কোমির বিরুদ্ধে গত রোববার সকালে বেশ কিছু নতুন টুইটার বার্তা পোস্ট করেছেন ট্রাম্প।