• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭ ২৯ শাবান ১৪৪২

সিরিয়ার সীমান্তে তুরস্কের ট্যাঙ্ক মোতায়েন

    সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
  • | ঢাকা , মঙ্গলবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০

মধ্যপ্রাচ্যের সংঘাতপূর্ণ দেশ সিরিয়ার সীমান্তে অতিরিক্ত সেনা ও ট্যাঙ্ক মোতায়েন করেছে তুরস্ক। সম্প্রতি সিরীয় বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে থাকা সর্বশেষ ঘাঁটি ইদলিবে জোরালো অভিযান শুরু করেছে সরকারি বাহিনী। ফলে নতুন করে শরণার্থী সংকটের আশঙ্কায় এ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে আঙ্কারা। সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিবে গতকাল সোমবার এক বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে তুরস্কের চার সৈন্য নিহত হয়েছে। এবং আহত হয়েছে আরও ৯ সেনা। আহতদের একজনের অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছে তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।বিবিসি।

সংবাদ বিবিসির এক প্রতিবদেনে জানানো হয়েছে, রাশিয়ার যুদ্ধবিমানের সহায়তায় সিরীয় সেনাবাহিনী ইদলিব অভিমুখে অগ্রসর হওয়ায় কয়েক হাজার মানুষ ওই অঞ্চল ছেড়ে পালাচ্ছে। রোববার তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, সিরীয় সীমান্তবর্তী হাতায় প্রদেশের রায়হানলি জেলায় অতিরিক্ত সেনা ও সাঁজোয়া যান মোতায়েন করা হয়েছে। এদিকে, তুর্কি পার্লামেন্টের পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিটির এক সদস্য বলেছেন, ‘ইদলিবে মানবিক বিপর্যয় এড়াতে এবং ওই অঞ্চল স্থিতিশীল রাখতে সামরিক ও কূটনৈতিকভাবে যা করা প্রয়োজন তার সবই করবে তুরস্ক’। তিনি বলেন, ‘সিরীয় সরকারের অভিযান বিপর্যয় ডেকে আনলে আঙ্কারা হস্তক্ষেপ করতে দ্বিধা করবে না’। এর আগে, গত বছরের ১ ডিসেম্বর থেকে তিন লাখ ৯০ হাজার মানুষ ইদলিব ছেড়ে পালিয়েছে। এর বেশিরভাগই নারী ও শিশু। বর্তমানে তুরস্কে আশ্রয় নিয়েছে ৩৫ লাখের বেশি সিরীয় শরণার্থী। নতুন করে শরণার্থী ঢলের আশঙ্কায় সীমান্তে এমন ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে আঙ্কারা।

অপরদিকে ইদলিবে গতকাল সোমবারের বোমা হামলার ঘটনা সম্পর্কে তুর্কি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, তুর্কিবাহিনী পাল্টা হামলা চালিয়ে লক্ষ্যসমূহ ধ্বংস করেছে। রুশ-তুরস্ক চুক্তির অংশ হিসেবে ওই এলাকায় আঙ্কারার ১২টি পর্যবেক্ষণ চৌকি রয়েছে। এছাড়া রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাশিয়ার সামরিক বাহিনী সমর্থিত সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ সরকারের সেনারা সম্প্রতি ইদলিবে বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে। এদিকে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এ হামলার পর বলেছেন, এমন হামলার প্রতিশোধ নেবে তারা।