• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭ ২৯ শাবান ১৪৪২

ভারতে দুটি স্বর্ণখনির সন্ধান

    সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
  • | ঢাকা , রোববার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০

image

তালেবান-যুক্তরাষ্ট্র আসন্ন শান্তি আলোচনাকে সাধুবাদ জানিয়ে গতকাল থেকে শুরু হওয়া সাময়িক যুদ্ধবিরতি উদযাপন করছেন আফগানিস্তানের কান্দাহার প্রদেশের শান্তি আন্দোলোনের কর্মীরা -আল জাজিরা।

দুই দশক ধরে অনুসন্ধানের পর উত্তরপ্রদেশে দুটি স্বর্ণখনির সন্ধান পেয়েছে ভারতের ভূতাত্ত্বিক জরিপ এবং উত্তরপ্রদেশ ভূতত্ত্ব ও খনি অধিদপ্তর। যাতে মজুদ রয়েছে ৩ হাজার ৩৫০ টন স্বর্ণ। যা দেশটির বর্তমানে মজুদ স্বর্ণেরও পাঁচগুণ (৬২৬ টন)। এনডিটিভি।

সংবাদ মাধ্যমটি এ তথ্য জানিয়ে এক প্রতিবেদনে বলেছে, এ খনির সন্ধান পাওয়া প্রসঙ্গে ভারতীয় খনি কর্মকর্তা কে কে রায় বলেন, সরকার ইজারা দেয়ার মাধ্যমে খনি থেকে স্বর্ণ উত্তোলনের চিন্তা করছে বলে জরিপ চালানো হচ্ছে। প্রদেশের সনপাহাড়ি এবং হারদি ফিল্ডে খনি দুটির সন্ধান পাওয়া গেছে। এর মধ্যে সনপাহাড়ি ফিল্ডে মজুদ রয়েছে ২ হাজার ৭শ’ টন স্বর্ণ, আর হারদি ফিল্ডে রয়েছে ৬৫০ টন স্বর্ণ।

ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিলের (ডব্লিউজিসি) দেয়া তথ্যানুযায়ী, হলুদ রঙের এ ধাতু ভারতের কাছে মজুদ রয়েছে ৬২৬ টন, যা বৈশ্বিক স্বর্ণ মজুদের ৬ দশমিক ৬ শতাংশ। মাওবাদী উপদ্রুত উত্তর প্রদেশের সোনভদ্রায় খনি দুটি অবস্থিত। স্বর্ণখনির এলাকা নির্ধারণে গত বৃহস্পতিবার সাত সদস্যের একটি টিম গঠন করেছে প্রদেশটির খনি বিভাগ। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে খনিজ সম্পদে পরিপূর্ণ সোনভদ্রা সহজে খনন করা সম্ভব। খনিজ সম্পদ উত্তোলনে সরকার শীঘ্রই নিলাম ডাকবে বলে তথ্য পাওয়া গিয়েছে।

স্বর্ণ ছাড়াও ওই এলাকায় দুর্লভ খনিজ সম্পদ ইউরেনিয়ামের সন্ধান পাওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন সেখানকার কর্মকর্তারা। প্রদেশটির বুন্দেলখন্দ ও বিদ্যান জেলায় সোনা, হীরা, প্লাটিনাম, চুনাপাথর, গ্রানাইট, ফসফেট, কোয়ার্টজ এবং চীনামাটির মতো মূল্যবান খনিজ প্রচুর পরিমাণে রয়েছে। বিশাল পরিমাণে স্বর্ণ ও অন্যান্য খনিজ সম্পদের সন্ধান ভারতের রাজস্ব আয়ের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। একইসঙ্গে দক্ষ এবং অদক্ষ দুই ধরনের শ্রমিকের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি এটি উত্তরপ্রদেশের দুটি জেলার পিছিয়ে থাকা অঞ্চলগুলোকে গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়নের দিকে নিয়ে যাবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। সবচেয়ে বেশি ৮ হাজার ১৩৩ টন স্বর্ণ মজুদ রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে। ৩ হাজার ৩৬৬ টন স্বর্ণ মজুদ নিয়ে তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে জার্মানি। তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল আইএমএফ। সংস্থাটির কাছে মজুদ থাকা স্বর্ণের পরিমাণ ২ হাজার ৮১৪ টন।