• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ১৩ মাঘ ১৪২৭, ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

দিল্লি বিধানসভা নির্বাচন

বুথ ফেরত জরিপ ফলাফল প্রত্যাখ্যান বিজেপির

    সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
  • | ঢাকা , সোমবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২০

গত শনিবার অনুষ্ঠিত দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে অরবিন্দ কেজরিওয়াল আবারও রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন- এমন আভাস দেয়া বুথ ফেরত জরিপ প্রত্যাখ্যান করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। শনিবার ওই ফল প্রকাশের পর বিজেপির সংসদ সদস্য, জ্যেষ্ঠ নেতারা এবং দিল্লি শাখার নেতাদের বৈঠকে ডাকেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ওই বৈঠকের পর বিজেপি নেতা মিনাক্ষি লেখি বলেছেন, বুথ ফেরত জরিপ সঠিক নয়। এনডিটিভি ।

আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি দিল্লির বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হবে। ভারতীয় সম্প্রচার মাধ্যমটি এ তথ্য জানিয়ে এক প্রতিবেদনে বলেছে, গত শনিবার দিল্লির বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। দেশটির বিভিন্ন টেলিভিশন ভোটপরবর্তী বুথ ফেরত জরিপ চালায়। এ জরিপের প্রায় সবকটিতেই এগিয়ে থাকতে দেখা যায় রাজধানী দিল্লির আম আদমি পার্টির (এএপি) কেজরিওয়ালকে। এতে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন নরেন্দ্র মোদির দল বিজেপি। গতবারের মতো এবারও ভারতের রাজধানীতে প্রায় নিশ্চিহ্ন হওয়ার পথে রয়েছে কংগ্রেস।

এরই ধরাবাহিকতায় শনিবার অমিত শাহের আহ্বানে অনুষ্ঠিত বিজেপি নেতাদের বৈঠকে বুথ ফেরত জরিপ নিয়ে আলোচনার কথা স্বীকার করেছেন মিনাক্ষি লেখি। তিনি বলেন, ‘বুথ ফেরত জরিপ সঠিক হয়নি। এছাড়াও শুধুমাত্র বিকেল চারটা বা পাঁচটা পর্যন্ত তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে’। তিনি বলেন, ‘আমাদের ভোটাররা দেরিতে ভোট দিতে এসেছেন আর তারা সন্ধ্যা পর্যন্ত ভোট দিয়েছেন’। বিজেপি দিল্লিতে সরকার গঠন করছে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এদিকে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেরিতে ভোট দেয়ার সিদ্ধান্ত আগে নির্ধারণ করেনি বিজেপি। গত বুধবার এক বৈঠকে অমিত শাহ দিল্লি ও দেশকে নিরাপদ করতে ভোটারদের সকাল সাড়ে দশটার মধ্যে ভোটকেন্দ্রে যাওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘আমি আপনাদের রায় জানি। ১১ ফেব্রয়ারির ফলাফলে সবাই চমকে যাবে’।

প্রসঙ্গত, টাইমস নাউ-এর বুথ ফেরত জরিপে দেখা গেছে, ৭০টি আসনের মধ্যে ৪৪টিতে জয়ী হতে পারে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি। বিজেপি পেতে পারে ২৬টি আসন। নিউজ এক্স পোলস্ট্র্যাটের দাবি, ৫০-৫৬টি আসনে জয়ী হতে পারে কেজরিওয়ালের দল। বিজেপি পেতে পারে ১০-১৪টি আসন। সুদর্শন নিউজের জরিপে দেখা গেছে, ৪০-৪৫টি আসনে জয়ী হতে পারে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের দল। ২৪-২৮টি আসন যেতে পারে বিজেপির দখলে। কংগ্রেস পেতে পারে ২-৩টি আসন।