• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ৪ রবিউল ‍আউয়াল ১৪৪২

বিশ্বে করোনা থেকে একদিনে সুস্থ ৫১ হাজার

    সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
  • | ঢাকা , শুক্রবার, ২২ মে ২০২০

image

বৈশ্বিক মহামারী করোনার প্রকোপ বাড়ার পাশাপাশি সুস্থতার সংখ্যাও উল্লেখযোগ্য হারে বাড়ছে। করোনার লাইভ আপডেট দেয়া ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের সর্বশেষ দেয়া তথ্য অনুযায়ী, গত বুধবার একদিনে বিশ্বে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৫১ হাজারেরও বেশি মানুষ। এদিন (বুধবার) সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ৫৮ হাজার ৪৯৬ জন। এদিকে একইদিন (বুধবার ) ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে রেকর্ড ১ লাখ ৬ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) পক্ষ থেকে এ তথ্য জানিয়ে বলা হয়েছে, যা করোনা শুরু হওয়ার পর থেকে বিশ্বে একদিনে আক্রান্ত হওয়ার সর্বোচ্চ সংখ্যা। এতে করে বিশ্বে এ আক্রান্ত মোট রোগী ৫০ লাখের মাইলফলক অতিক্রম করেছে। বিবিসি, আল-জাজিরা, রয়টার্স।

এক প্রতিবেদনে সংবাদ মাধ্যম আল-জাজিরা এ তথ্য জানিয়ে বলেছে, গতকাল বৃহস্পতিবার জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের দেয়া সর্বশেষ পরিসংখ্যান মতে, বিশ্বে এ পর্যন্ত নতুন করোনাভাইরস জনিত রোগ কোভিড-১৯ থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৮ লাখ ৯৯ হাজার ৬৭৫ জন। ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৬১ হাজার ১৮০ জন। স্পেনে ১ লাখ ৯৬ হাজার ৯৫৮ জন। ইতালিতে ১ লাখ ২৯ হাজার ৪০১ জন। ফ্রান্সে ৬২ হাজার ৫৬৩ জন। এদিকে ইরানে সুস্থ হয়েছেন ৯৭ হাজার ১১৩ জন। তুরস্কে সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ১২ হাজার ৮৯৫ জন। ব্রাজিলে সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৬ হাজার ৭৯৪ এবং রাশিয়ায় ৭৬ হাজার ১৩০ জন করোনা জয় করেছেন।

বিশ্বে করোনা থেকে সুস্থতার হারে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে জার্মানি। দেশটিতে অবিশ্বাস্যভাবে আক্রান্তের তুলনায় সুস্থতার সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। জার্মানিতে এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৫৫ হাজার ৭০০ জন।

অপরদিকে করোনাভাইরাস নিয়ে আপডেট দেয়া ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ লাখ ৮৭ হাজার ৮৫৯ জন। অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স বিশ^বিদ্যালয়ের সর্বশেষ দেয়া পরিসংখ্যান মতে, বিশ্বজুড়ে করোনায় ৩ লাখ ২৬ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। সবচেয়ে ভয়ানক পরিস্থিতি বিরাজ করছে উত্তর আমেরিকার দেশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এ পর্যন্ত আক্রান্ত ১৫ লাখ ও মৃত্যু ৯২ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

এনিয়ে আন্তর্জাতিক এ স্বাস্থ্য সংস্থাটির প্রধান তেদ্রোস আধানম গ্রাব্যিয়েসাস সতর্ক করে বলেন, ‘নতুন আক্রান্তের দুই-তৃতীয়াংশই মাত্র চারটি দেশে। অথচ অনেক দেশই লকডাউন শিথিল করছে। বিশ্বকে এ মহামারী নিয়ে আরও দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে হবে।’ জাতিসংঘের এ সংস্থাটির মতে, বিশ্ব করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৪০ লাখ অতিক্রম করার পর এখন দেখা যাচ্ছে দুই সপ্তাহের কম সময়ে ৫০ লাখ ছুঁয়ে গেল। তবে বিশেষজ্ঞদের অভিমত, যদি অনেক দেশে পরীক্ষা এত কম না হতো, তবে প্রকৃত আক্রান্তের হার আরও অনেক বেশি হতো।

আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশ শিথিল করা হচ্ছে লকডাউন। করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যায় বিশ্বের শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এ পর্যন্ত প্রাণঘাতী এ ভাইরসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৫ লাখেরও বেশি মানুষ। এছাড়াও এখনও পর্যন্ত মারা গেছেন ৯২ হাজারেরও বেশি মানুষ ।

প্রসঙ্গত, বৈশ্বিক মহামারি করোনায় এ পর্যন্ত বিশ্বের ১৮৮টি দেশ ও অঞ্চল আক্রান্ত হয়েছে। প্রাণঘাতী এ ভাইরসে মৃতের সংখ্যা ৩ লাখ ২৮ হাজার(৩২৮,১৯১) ছাড়িয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে সর্বশেষ দেয়া পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে, বিভিন্ন দেশের সরকারি হিসাব অনুযায়ী, করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ লাখ ৫৬১ জন। আগের দিন বুধবার (বাংলাদেশ সময়) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৮ লাখ ৯৬ হাজার ৩১২। এর মধ্যে ৩ লাখ ২৩ হাজার ২২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদিকে করোনভাইরাস নিয়ে আপডেট দেয়া ওয়েবসাইট ওয়াল্ডওমিটারের সর্বশেষ দেয়া তথ্য মতে, বুধবার সকাল পর্যন্ত করোনায় বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ২৪ হাজার ৯১০ জনে। আর আক্রান্তের সংখ্যা ৮৯ লাখ ৮৬ হাজার ৩৩২ জন।