• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ১৭ জিলহজ ১৪৪১, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭

নিরাপত্তা পরিষদে করোনা প্রস্তাব আটকে দিল যুক্তরাষ্ট্র

    সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
  • | ঢাকা , রোববার, ১০ মে ২০২০

image

গত জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক -এএফপি

প্রায় পৌনে তিন লাখ মানুষের প্রাণ কেড়ে নেয়া বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাস মোকাবিলায় জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের একটি প্রস্তাবনায় ভোট প্রদানে যুক্তরাষ্ট্র বাধা দেয়ায় তা ভেস্তে গেছে। বিশ্বের যুদ্ধ বা সংঘাত চলমান কয়েকটি দেশে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানানো ওই প্রস্তাবনায় শুক্রবার ভোট হওয়ার কথা ছিল। এ প্রস্তাবনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট জাতিসংঘের কূটনৈতিক সূত্রের বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি এ তথ্য জানিয়েছে। এএফপি, আল-জাজিরা।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী আক্রান্তের সংখ্যা ৪০ লাখ ছাড়িয়েছে। ভাইরাসটিতে এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৭৬ হাজার ২১৫ জনের। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৩ লাখ ৮৫ হাজার ১২৩ জন। করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় শীর্ষে রয়েছে উত্তর আমেরিকার দেশ যুক্তরাষ্ট্র। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ লাখ ২১ হাজার। আর মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৮ হাজার ৬১৫ জনে।

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে (ডব্লিউএইচও) নিয়ে চলমান দ্বন্দ্বের জেরে যুক্তরাষ্ট্র ওই প্রস্তাব পাসে বাধা দিয়েছে বলে কূটনৈতিক সূত্রের বরাতে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে আল-জাজিরা। আর ফরাসি সংবাদ মাধ্যম এএফপি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ভোটের জন্য প্রস্তাবটি শুক্রবার উত্থাপনের জন্য প্রস্তুত করা হলেও ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদে যুক্তরাষ্ট্রের একার বাধায়ই প্রস্তাবনাটির পাস এদিন আটকে যায়। গত মার্চ থেকে ওই প্রস্তাবনা নিয়ে কাজ করছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। শুক্রবার ওই প্রস্তাবটি পরিষদে তোলার পর তা পাস হলে, বিশ্বের যেসব দেশে এখন যুদ্ধ বা সংঘাত চলছে আপাতত তা সমন্বিতভাবে বন্ধ রাখার আহ্বান জানাতে পারত নিরাপত্তা পরিষদ। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের বাধায় তা ব্যাহত হলো। এ প্রস্তাবনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কূটনৈতিক সূত্র এএফপিকে জানিয়েছে, চীন ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মধ্যকার চলমান দ্বন্দ্বের জেরে যুক্তরাষ্ট্র ওই প্রস্তাব পাসে বাধা দিয়েছে।

গত ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে চীনের মধ্যাঞ্চলীয় হুবেই প্রদেশের রাজধানী শহর উহানের এক বাজার থেকেই নতুন নভেল করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে করোনার উৎপত্তি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে একে অপরকে দোষারোপ করার পাশাপাশি কথার লড়াই চলছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প শুরু থেকেই করোনার বিস্তারের জন্য চীনকে দায়ী করে আসছেন। সম্প্রতি তিনি দাবি করেন, উহানের একটি ভাইরোলজি ল্যাব থেকে করোনার ছড়িয়ে পড়ার প্রমাণ তিনি দেখেছেন। এ ইস্যুতে চীনের বিরুদ্ধে শুল্কারোপের হুমকিও দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ট্রাম্পের এমন অভিযোগের প্রতিক্রিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা ছড়ানো’র অভিযোগ করেছে চীন।

এরই ধারবাহিকতায় মার্কিন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের (হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্ট) এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, চীন ইচ্ছাকৃতভাবে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ে কাছে করোনাভাইরাসের ভয়াবহতা সম্পর্কিত তথ্য গোপন করেছিল। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা শুরু থেকেই দাবি করে আসছে, নতুন করোনাভাইরাসের উৎস প্রাকৃতিক, এটি ল্যাব থেকে ছড়ায়নি। ট্রাম্প সংস্থাটির বিরুদ্ধে চীনের প্রতি পক্ষপাতদুষ্ট হওয়ার অভিযোগ তুলে অর্থ সহায়তা স্থগিত করেছে। এ নিয়ে ওয়াশিংটন বেইজিংয়ের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এমন পরিস্থিতির মধ্যেই প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের উৎস সম্পর্কে তদন্তে অংশগ্রহণের জন্য চীনের প্রতি আহ্বান জানায় ডব্লিউএইচও। তবে চীন সেই আহ্বানে সাড়া দেয়নি। তারা নিজেরাই ভাইরাসের উৎস তদন্ত করে দেখার ঘোষণা দিয়েছে।

এবার পেন্সের প্রেস সেক্রেটারি আক্রান্ত : এদিকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এক পরিচারকের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হওয়ার পরদিনই দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের এক সহযোগীরও কোভিড-১৯ ধরা পড়েছে। সংবাদ মাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়ে বলেছে, পেন্সের প্রেস সেক্রেটারি কেটি মিলারের নতুন নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে শুক্রবার হোয়াইট হাউজ।

কেটি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের উপদেষ্টা স্টিফেন মিলারের স্ত্রী। দু’দিনের ব্যবধানে দুই কর্মীর কোভিড-১৯ শনাক্ত হওয়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্টের দফতর হোয়াইট হাউজে প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে। এমন পরিস্থিতিতে সতর্কতার অংশ হিসেবে প্রতিদিনই ট্রাম্প ও পেন্সের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছে।