• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ মহররম ১৪৪২, ১২ আশ্বিন ১৪২৭

তালেবানকে অস্ত্রবিরতির আহ্বান প্রেসিডেন্ট ঘানির

সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক

| ঢাকা , সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

image

আশরাফ ঘানি

আফগানিস্তানের সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠী তালেবানকে অস্ত্রবিরতির আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি। আন্তর্জাতিক শান্তি দিবসকে সামনে রেখে গত শনিবার টেলিভিশন ভাষণে তিনি এ আহ্বান জানান।

এদিন প্রেসিডেন্ট ঘানি বলেন, তালেবান অস্ত্রবিরতির আহ্বান উপেক্ষা করে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। তারা যদি শান্তিতে রাজি হয় তবে আমরা যুদ্ধ থামাতে এক মুহূর্ত অপেক্ষা করব না। আফগানিস্তানের জনগণ টেকসই শান্তিচুক্তি চায় এবং শান্তি ফিরিয়ে আনতে তারা বদ্ধপরিকর। এদিকে আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য শান্তি আলোচনার দরজা এখনও খোলা রয়েছে বলে জানান তালেবান কর্মকর্তারা। তালেবানের প্রধান আলোচক শের মোহাম্মদ আব্বাস স্টানিকজাই বলেন, যুক্তরাষ্ট্র নিজেই বলছে তারা কয়েক হাজার তালেবানকে হত্যা করেছে। কিন্তু এরমধ্যে যদি একজন মার্কিন সেনা নিহত হয়। তার মানে এই নয় যে, তাদের এমন প্রতিক্রিয়া দেখানো উচিত। কেননা, যুক্তরাষ্ট্র বা তালেবান; আমাদের কারও দিক থেকে কোনও যুদ্ধবিরতি নেই। টুইন টাওয়ারে হামলার পর মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটো আফগানিস্তানে হামলা চালিয়ে তালেবান সরকারকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করে। তখন থেকেই যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্রদের বিরুদ্ধে সশস্ত্র লড়াই করে যাচ্ছে গোষ্ঠীটি। দীর্ঘ ১৮ বছরের যুদ্ধ অবসানের লক্ষ্যে গত বছরের জুন থেকে কাতারের রাজধানী দোহায় মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে ধারাবাহিক আলোচনা শুরু করেন তালেবান কর্মকর্তারা। এরই প্রেক্ষিতে একটি শান্তিচুক্তিতে একমত হয় দুই পক্ষ। তবে সম্প্রতি কাবুলে তালেবান হামলায় এক মার্কিন সেনা নিহতের পর শান্তিচুক্তি বাতিলের ঘোষণা দিয়ে আলোচনায় ইতি টানার ঘোষণা দেন ট্রাম্প।

শান্তি আলোচনা বাতিলের করার পর আফগানিস্তানে হামলার তীব্রতা বাড়িয়েছে তালেবান। একই সঙ্গে আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় আফগান প্রেসিডেন্ট নির্বাচন বানচালের ঘোষণা দিয়েছে গোষ্ঠীটি।

এর আগে গত ১৭ সেপ্টেম্বর প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানির নির্বাচনী সমাবেশে হামলা চালিয়েছে তালেবান। এতে ৪৫ জনের প্রাণহানি ঘটে। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমগুলার প্রতিবেদনে বলা হয়, বৃহস্পতিবারের ওই হামলায় হতাহতদের মধ্যে বেশিরভাগই ছিলেন চিকিৎসক ও রোগী। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। দ্বিতীয় পাঁচ বছর মেয়াদের জন্য এ নির্বাচনেও প্রার্থী হচ্ছেন ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি। তালেবান আসন্ন নির্বাচন বয়কটের ডাক দিয়েছে। ভোটাররা যেন ভোটকেন্দ্রমুখী না হয় তার জন্য আফগানিস্তানের ও বিদেশি বাহিনীগুলোর সঙ্গে লড়াই তীব্র করে তোলার শপথ নিয়েছেন তালেবান কমান্ডাররা।