• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

রবিবার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭, ১৪ রবিউল ‍আউয়াল ১৪৪২

ইরাক ও সিরিয়া থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে বিতাড়নের হুঁশিয়ারি ইরানের

    সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
  • | ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৯ মে ২০২০

image

আয়াতুল্লাহ খামেনি

ইরাক ও সিরিয়া থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে বিতাড়িত করার হুশিয়ারি দিয়েছে ইরান। ভেনিজুয়েলায় তেল রফতানি নিয়ে ওয়াশিংটনের সঙ্গে নতুন করে শুরু হওয়া উত্তেজনার মধ্যে গত রোববার দেশটির সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনি এ হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন। পার্স টুডে।

এদিন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজিত এক ইফতার পার্টিতে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে ভাষণ দেন আয়াতুল্লাহ খামেনি। সেখানে দেয়া ভাষণেই তিনি যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি এ হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, আফগানিস্তান, ইরাক ও সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক আগ্রাসন বিশ্বব্যাপী মার্কিন সরকারকে ঘৃণিত করে তুলেছে। তবে ইরাক বা সিরিয়ায় মার্কিন সেনারা থাকতে পারবে না বরং তাদের চলে যেতে হবে। নিঃসন্দেহে তাদের এসব দেশ থেকে বিতাড়িত করা হবে।

তিনি বলেন, বিশ্বের বহু দেশে এমনকি আমেরিকার ভেতরেও মার্কিন পতাকায় অগ্নিসংযোগ করা হয়। এটি বিশ্ববাসীর অন্তরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি ঘৃণার মাত্রা তুলে ধরে। এসময় সর্বোচ্চ এ নেতা বলেন, শুধু সাধারণ মানুষ নয় আমেরিকার মিত্র দেশগুলোর রাষ্ট্রপ্রধানরাও নিজেদের মধ্যে আলাপচারিতার সময় মার্কিন নেতৃবৃন্দের প্রতি বিতৃষ্ণা ও ঘৃণা উগড়ে দেন। খামেনি বলেন, বর্তমান মার্কিন প্রশাসনের প্রতি বিশ্ব জনমতের ঘৃণার প্রধান কারণ, সে দেশের প্রেসিডেন্ট ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বেপরোয়া ও যুক্তিহীন আচরণ এবং বাগাড়ম্বর।

তিনি বলেন, দীর্ঘমেয়াদে আমেরিকা বিশ্বব্যাপী গণহত্যা, অপরাধযজ্ঞ, অন্যায় আচরণ, সন্ত্রাসবাদ লালন, স্বৈরাচারী ও গণধিকৃত সরকারগুলোর প্রতি সমর্থন দিয়ে আসছে। তারা ইহুদিবাদী ইসরায়েলকেও পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে আসছে। এসব কারণে দেশটি বিশ্বজুড়ে নিন্দিত ও ঘৃণিত হয়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে অর্থনীতি ও করোনাভাইরাস সামাল দিতে না পারার কারণে যুক্তরাষ্ট্রের অভ্যন্তরে বর্তমান মার্কিন প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ বেড়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। আয়াতুল্লাহ খামেনি বলেন, আমেরিকার মোড়লগিরির বিরুদ্ধে শক্তিশালী প্রতিরোধ গড়ে তোলার কারণেই বিশ্বব্যাপী ইরান সুখ্যাতি ও সম্মান অর্জন করেছে। তবে আমাদের জনগণের মধ্যে হতাশা সৃষ্টি ও ইরানের ভাবমর্যাদা ক্ষুণ্ন করার কাজে এখনও হাল ছাড়েনি আমেরিকা। কিন্তু আল্লাহ তায়ালা শত্রুর এ অপচেষ্টার উল্টো ফল দিয়েছেন। ভাষণে প্রতিরোধের সম্মানজনক পথচলা অব্যাহত রাখতে ইরানি জনগণের প্রতি আহ্বান জানান দেশটির সর্বোচ্চ নেতা। এর আগে ভেনিজুয়েলাগামী ইরানি তেল ট্যাংকারের গতিপথ যুক্তরাষ্ট্র রোধ করার চেষ্টা করলে তার পরিণাম ভালো হবে না বলে হুঁশিয়ারি জানায় তেহরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভোদ জারিফ।। একইদিন (রোবাবর) জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসকে লেখা এক চিঠিতে এমন হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি। চিঠিতে জারিফ বলেন, ভেনিজুয়েলাগামী ইরানি তেল ট্যাংকারের চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি করতে যুক্তরাষ্ট্র ক্যারিবিয়ান সাগরে নৌবাহিনী পাঠিয়েছে। তিনি বলেন, ইরানি তেল ট্যাংকারের গতিরোধ করে দেয়ার যে হুমকি মার্কিন কর্মকর্তারা দিয়েছেন, তা বেআইনি, বিপজ্জনক ও উসকানিমূলক।