• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ৬ রবিউল ‍আউয়াল ১৪৪২

ইতিহাসের সবচেয়ে ‘ভয়ঙ্কর শীতকাল’র ঝুঁঁকিতে যুক্তরাষ্ট্র সাবেক মার্কিন স্বাস্থ্য কর্মকর্তার সতর্কবার্ত

    সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
  • | ঢাকা , শনিবার, ১৬ মে ২০২০

image

প্রাণঘাতী নতুন করোনাভাইরাসের কারণে যুক্তরাষ্ট্র আগামী দিনগুলোতে ‘আধুনিক সময়ের সবচেয়ে অন্ধকারাচ্ছন্ন শীতকাল’র মুখোমুখি হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন দেশটির সাবেক শীর্ষ এক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা। একইসঙ্গে তিনি সতর্ক করে আরও বলেছেন, শীতে এ ভাইরাসের সংক্রমণের ‘পুনরুত্থান’ও হতে পারে। মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের (হাউজ অব রিপ্রেজেনটেটিভস) স্বাস্থ্যবিষয়ক এক উপকমিটির শুনানিতে গত বৃহস্পতিবার এমন মন্তব্য করেন সাবেক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা রিক ব্রাইট। বিবিসি।

এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়ে সংবাদ মাধ্যমটি বলেছে, বিশ্বজুড়ে তিন লাখেরও বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নেয়া করোনাভাইরাসের টিকা আবিষ্কারের চেষ্টা করা মার্কিন সরকারি সংস্থা বায়োমেডিকেল অ্যাডভান্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের প্রধান ব্রাইট। গত মাসে তাকে তার পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়। সাবেক এ শীর্ষ স্বাস্থ্য কর্মকর্তার অভিযোগ, কোভিড-১৯ এর চিকিৎসায় হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের ব্যবহার নিয়ে মানুষকে সতর্ক করার কারণেই তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ব্রাইটকে ‘অসন্তুষ্ট কর্মী’ হিসেবে অভিহিত করে তার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন।

ম্যালেরিয়ার চিকিৎসায় ব্যবহৃত হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন নতুন করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ‘কার্যকরী ভূমিকা’ পালন করতে পারে বলে গত মাসে দেশটির প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প উচ্ছ্বাস প্রকাশ করলেও অনেক বিজ্ঞানী ও গবেষকই কোভিড-১৯ এর চিকিৎসায় ওষুধটির ব্যবহার ‘হিতে বিপরীত’ হতে পারে বলে সতর্ক করেন। এদিকে রাজনৈতিক কারণে পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে- যুক্তরাষ্ট্রের স্পেশাল কাউন্সিলের দফতরে এমন অভিযোগ এনে ইতোমধ্যেই তার পদ ফেরতও চেয়েছেন ব্রাইট। তবে প্রেসিডেন্টের দফতর হোয়াইট হাউজ বায়োমেডিকেল অ্যাডভান্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের সাবেক এ পরিচালকের অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি ঘটেছে। গতকাল সকাল পর্যন্ত দেশটিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৪ লাখ ১৭ হাজার ছাড়িয়ে গেছে বলে জানিয়েছে জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বশেষ তথ্য। দেশটিতে করোনাভাইরাসজনিত রোগ কোভিড-১৯ এ মৃতের সংখ্যাও ৮৬ হাজারের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে। এরই মধ্যে দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্য নিউইয়র্কেই মারা গেছেন ২৭ হাজার ৬শ’র বেশি মানুষ। এর আগের দিন (বৃহস্পতিবার) প্রতিনিধি পরিষদের সাবকমিটিকে দেয়া সাক্ষ্যে রিক ব্রাইট বলেছেন, ‘বহু প্রাণহানি হয়েছে’ কারণ প্রাদুর্ভাবের শুরুর দিকে সরকার ‘নিষ্ক্রিয়’ ভূমিকা পালন করেছে। প্রাণঘাতী এ ভাইরাস মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সরঞ্জামের ঘাটতি নিয়ে তিনি জানুয়ারিতেই স্বাস্থ্য ও মানবসেবা মন্ত্রণালয়ের ‘সর্বোচ্চ পর্যায়কে’ সতর্ক করলেও তাদের কাছ থেকে ‘কোন সাড়া পাননি’ বলেও এ সময় দাবি করেন বায়োমেডিকেল অ্যাডভান্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের সাবেক এ পরিচালক।