• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭ ২৯ শাবান ১৪৪২

ভারত সফরে ট্রাম্প

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে এক হয়ে লড়বে ভারত-যুক্তরাষ্ট্র

    সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
  • | ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০

image

গুজরাটের আহমেদাবাদ শহরের সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল বিমানবন্দরে ট্রাম্পকে লাল গালিচা সংবর্ধনায় মোদি - ডেইলি মেইল

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, সন্ত্রাস দমন এবং জঙ্গি মতাদর্শের বিরুদ্ধে এক হয়ে লড়াই করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত। গতকাল প্রথমবারের মতো ভারত সফরে গিয়ে নয়াদিল্লিকে এমন প্রতিশ্রুতির কথা জানান তিনি। এদিন সকালে গুজরাটের বৃহত্তম শহর আহমেদাবাদের সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল বিমানবন্দরে পৌঁছলে তাকে নজিরবিহীন অভ্যর্থনা জানায় মোদি সরকার। এনডিটিভি, আনন্দ বাজার, বিবিসি।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে প্রথমবারের মতো দু’দিনের (২৪ ও ২৫ ফেব্রুয়ারি) প্রথমবারের মতো দু’দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে গতকাল ভারতে পৌঁছান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। স্থানীয় সময় বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে গুজরাটের বৃহত্তম শহর আহমেদাবাদের সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল বিমানবন্দরে অবতরণ করে ট্রাম্পকে বহনকারী বিমান ‘এয়ারফোর্স ওয়ান’। বিমান থেকে নেমেই মোদিকে আলিঙ্গন করেন ট্রাম্প। এরপর বিমানবন্দর থেকে সপরিবারে সাবরমতী আশ্রম যান ট্রাম্প। সেখানে গিয়ে ফার্স্ট লেডি মেলানিয়াকে নিয়ে চরকা কাটেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ফাস্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প ও পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বিমান থেকে নেমেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বিমানবন্দরে উপস্থিত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আলিঙ্গন করেন। এ সময় বিমানবন্দরে নাচে-গানে ও শঙ্খ বাজিয়ে ভারতীয় রীতিতে সম্মানিত অতিথিদের স্বাগত জানানো হয় বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ‘নমস্তে ট্রাম্প’ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গুজরাটে বিশ্বের বৃহত্তম ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হাজির হন। ‘নমস্তে’ বলে নিজের ভাষণ শুরু করেন তিনি। নিজের বক্তব্যে অখণ্ড ভারতের প্রসঙ্গও তুলে ধরেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। বলেন, ভারত এমন একটি দেশ, যেখানে হিন্দু, মুসলিম, শিখ, জৈন এবং খ্রিস্টান ধর্মাম্বলী মানুষ পাশাপাশি বাস করেন। ভারতকে এক মহান দেশ আখ্যা দেন তিনি। এ সময় পাকিস্তানেরও সমালোচনা করেন তিনি। ভারত-যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বাণিজ্যিক বাধা দূর করার বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও জানান। তিনি আরও দাবি করেন, এ কারণেই পাকিস্তান সীমান্তে পরিচালিত বিভিন্ন সন্ত্রাসী সংগঠনের জঙ্গি কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনায় তার প্রশাসন ইসলামাবাদের সঙ্গে ইতিবাচকভাবে কাজ করে যাচ্ছে। একইসঙ্গে তিনি চা বিক্রেতা থেকে দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়ে ওঠায় নরেন্দ্র মোদির সংগ্রামী জীবনের প্রশংসা করেন। বলেন, ভারতের এমন অভ্যর্থনার কথা তার সারাজীবন মনে থাকবে। মোদিকে গুজরাটের গর্ব বলেও উল্লেখ করে ট্রাম্প।

এদিকে নরেন্দ্র মোদি আজকের দিনকে ‘মোতেরার ঐতিহাসিক দিন’ আখ্যা দিয়ে ট্রাম্পকে ‘বন্ধু’ বলে সম্বোধন করেন। ভারতের ঐতিহ্য তুলে ধরে ট্রাম্প দম্পতিকে অভিনন্দন জানান তিনি। মোদি বলেন, আপনাদের সবাইকে দেখে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। আপনাদের সবার উপস্থিতি আমাদের দেশের গর্ব আরও অনেক বাড়িয়ে দিয়েছে।

ভাষণে ভারতকে সামরিক হেলিকপ্টার, সর্বাধুনিক অস্ত্রশস্ত্র, অ্যাডভান্স এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন ট্রাম্প। দুই দেশের মধ্যে তিনি বিলিয়ন ডলারের প্রতিরক্ষা চুক্তি হবে বলে জানান।

দু’দিনের এ সফরে আহমেদাবাদ থেকে ট্রাম্প ও তার পরিবার তাজমহল দেখতে আগ্রার উদ্দেশে রওনা হবেন। সন্ধ্যায় তারা বিমানে করে ভারতের রাজধানী দিল্লি যাবেন। সেখানে আগামীকাল দু’পক্ষের মধ্যে শীর্ষ পর্যায়ের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

এখান থেকে শতাধিক সফরসঙ্গীসহ ট্রাম্প প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে গুজরাটের সবরমতি আশ্রমে যান। গুজরাটে জন্মগ্রহণকারী ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের নেতা মহাত্মা গান্ধী এ আশ্রমে ১৩ বছর বসবাস করেন। বিমানবন্দর থেকে আশ্রম পর্যন্ত আট কিলোমিটার পথে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়।

প্রসঙ্গত, ষষ্ঠ মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ভারত সফরে এলেন ট্রাম্প। এর আগে ২০১৬ সালে বারাক ওবামা ভারত সফর করেছিলেন। তখনও ক্ষমতায় ছিল নরেন্দ্র মোদি নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকার।