• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ১ আষাড় ১৪২৮ ৩ জিলকদ ১৪৪২

লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

নাগরিকত্ব নিয়ে রাহুলকে নোটিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের

সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক

| ঢাকা , বুধবার, ০১ মে ২০১৯

image

রাহুল গান্ধী

ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনের মধ্যেই প্রধান বিরোধী দল জতীয় কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গান্ধীর নাগরিকত্ব নিয়ে ব্যাখ্যা চেয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। রাহুল গান্ধী ব্রিটিশ নাগরিক ও লন্ডনের একটি কোম্পানির ডিরেক্টর হিসেবে তার নাম রয়েছে বলে ক্ষমতাসীন বিজেপির এক সাংসদ অভিযোগ করেন। এরই প্রেক্ষিতে রীতিমতো নোটিশ পাঠিয়ে দুই সপ্তাহের মধ্যে রাহুলকে নাগরিকত্বের বিষয়টি পরিষ্কার করার নির্দেশ দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এনডিটিভি, নিউজ ১৮।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত পাঁচ বছর ধরে (২০১৫ সাল থেকে) বিজেপি নেতা সুব্রহ্মামানিয়াম স্বামী রাহুলের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তুলে আসছেন। সাত দফার লোকসভা নির্বাচনের চার দফায় ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে ইতোমধ্যেই। গত সোমবার চতুর্থ দফার ভোট গ্রহণের পর এই বিজেপি নেতা দাবি করেন, লন্ডনের একটি কোম্পানির ডিরেক্টর হিসাবে নাম রয়েছে রাহুলের। কোম্পানির নথিতে নিজেকে ব্রিটিশ নাগরিক হিসেবে ঘোষণা করেছেন তিনি। তার ভিত্তিতেই রাহুলের নাগরিকত্ব নিয়ে অভিযোগ তোলেন এই বিজেপি নেতা। তার অভিযোগের ভিত্তিতেই গতকাল (মঙ্গলবার) রাহুলকে নোটিশ পাঠায় ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এ মন্ত্রণালয়ের নাগরিকত্ব বিভাগের কর্মকর্তা বি সি যোশী নোটিশে বলেন, সুব্রহ্মামানিয়াম স্বামী একটি বক্তব্য সামনে এনেছেন। তিনি বলেছেন, যুক্তরাজ্যে ২০০৩ সালে ব্যাক আপস লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু হয়। যার ঠিকানা ৫১ সাউথ গেট স্টিট। আর আপনি (রাহুল গান্ধী) সেই কোম্পানির একজন কর্মকর্তা। সেখানে আপনি নিজের জন্ম তারিখ ১৯৭০ সালের ১৯ জুন বলেছেন। নিজেকে ব্রিটিশ নাগরিক হিসেবে উল্লেখ করেছেন। ২০০৫ সালের ১০ অক্টোবর থেকে ২০০৬ সালের ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত এ কোম্পানির আয়কর রিটার্নও জমা পড়েছে। তাই আপনাকে অনুরোধ করা হচ্ছে, এ বিষয়ে কী তথ্য আপনার কাছে রয়েছে তা আমাদের জানান। চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই রাহুলকে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করতে হবে।

এবারের লোকসভা নির্বাচনে দুটি আসন থেকে প্রার্থী হয়েছেন রাহুল। এর মধ্যে কেরালার ওয়ানড় কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ প্র্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। আমেথীর ভোটগ্রহণ এখনও বাকি আছে।